ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ শাবান ১৪৪৫

লাইফস্টাইল

মাইগ্রেনে হৃদরোগের ঝুঁকি

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৮
মাইগ্রেনে হৃদরোগের ঝুঁকি মাইগ্রেন

তীব্র মাথা ব্যথায়ও (মাইগ্রেন) খুব একটা পাত্তা না দিয়ে হুটহাট ওষুধ খেয়ে নেওয়ার অভ্যাস অনেকেরই আছে। দিনের পর দিন মোড়ের দোকানের ওষুধেই ভরসা করি আমরা। কিন্তু গবেষণা বলছে, মাইগ্রেনের ব্যথা থেকে হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক ও মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাঁধার মতো গুরুতর সমস্যা হতে পারে।

ডেনমার্কের আরহুস বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল ও আমেরিকার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের মতে, বিশ্বে প্রায় একশ কোটি মানুষ মাইগ্রেনের ব্যথ্যায় ভোগেন।  

মাথাব্যথায় আমারা হরহামেশাই ব্যথানাশক ওষুধ খেয়ে থাকি।

গবেষণায় দেখা গেছে, এসব ওষুধ খাওয়ার ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়। এছাড়াও রক্তনালী ব্লক হয়ে যেতে পারে।  

মাইগ্রেনে আক্রান্ত নারী-পুরুষ উভয়েই একই ঝুঁকিতে থাকেন। ডেনমার্কে পরিচালিত একটি গবেষণা অনু্যায়ী এক হাজার জন মাইগ্রেনের রোগীর মধ্যে ২৫জনের হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা থাকে। আর মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাঁধার আশঙ্কা তৈরি হয় অন্তত ৪৫জনের।
কাজেই যখন তখন অ্যাসপিরিন জাতীয় ওষুধ খাওয়া বন্ধ করুন।  

মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে যা করতে পারেন-

•    ঘরের লাইট বন্ধ করে ঘুমান।
•    আইস প্যাক অথবা হিট প্যাক কপালে লাগান।
•    ক্যাফেইন জাতীয় পানীয় যেমন চা, কফি খাওয়া যেতে পারে।
•    ঘুমানোর রুটিন অনুসরণ করুন। প্রতিদিন একই সময় ঘুমান এবং একই সময় উঠুন।
•    বেশিক্ষণ ক্ষুধা নিয়ে থাকবেন না 
•    চিজ, চকলেট, অ্যালকোহল জাতীয় খাবার মাইগ্রেনের ব্যথা বাড়ায়।  

যেকোনো ধরনের ওষুধ খাওয়ার আগে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিন।  

 

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৮
এমএসএ/এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।