ঢাকা, বুধবার, ২৫ মাঘ ১৪২৯, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৬ রজব ১৪৪৪

লাইফস্টাইল

শীতের খাবারের তালিকায় যা বাদ দেবেন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩১৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১০, ২০১৭
শীতের খাবারের তালিকায় যা বাদ দেবেন শীতের খাবারের তালিকায় যা বাদ দেবেন

শীতে শরীরের বাড়তি যত্ন নেবার প্রয়োজন পরে তা আমাদের সবারই জানা। কিন্তু সুস্থ থাকতে চাইলে খাবারের তালিকাতেও আনতে হবে পরিবর্তন। শুকনো ফল, বাদাম, আদা, তুলসি, শাকসবজি শীতের খাবারের তালিকায় রাখা ভালো। কিন্তু দুগ্ধজাত খাবার ও লাল মাংস এড়িয়ে চলতে বলেন বিশেষজ্ঞরা।

দুগ্ধজাত খাবার

দুধ একটি সম্পূর্ণ খাবার হিসেবে পরিচিত। কিন্তু শীতকালে এটি কম খাওয়া ভালো।

কারণ দুধ কফ বৃদ্ধি করে। ফলে আপনি গলার অসস্তিতে ভুগবেন।

গরম বা ঠাণ্ডা পানীয়

শীতের দিনে প্রত্যেকেই গরম কফি, গরম চা কিংবা গরম চকলেট খেতে পছন্দ করে। কিন্তু এটা মনে রাখা উচিত এগুলো চর্বি ও ক্যাফেইনে ভরা থাকে। যা খুব সহজেই শরীরকে ডিহাইড্রেটেড করে দেয় ফলে কফ বা শ্লেষ্মা ঘন হয়ে যায়। তাই এগুলোর পরিবর্তে পানি বা ভেষজ পানীয় পানের অভ্যাস করুন।

লাল মাংস

প্রোটিনের সবচেয়ে ভালো উৎস হলো মাংস ও দুধ। উচ্চমাত্রার প্রোটিন গলায় শ্লেষা জমায়। প্রক্রিয়াজাত মাংস ও উচ্চ চর্বি সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে এর চেয়ে শীতে হাঁস-মুরগির মাংস খাওয়া ভালো।

ভাজাপোড়া

ভাজাপোড়া জাতীয় খাবারে অতিরিক্ত চর্বি থাকে। এসব খাবার আপনার খরচের তুলনায় শরীরে বেশি পরিমাণে ক্যালরি উৎপন্ন করে। এগুলো পাকস্থলির সমস্যা সৃষ্টির জন্যেও দায়ী।

অ-মৌসুমি ফল

অন্য মৌসুমের ফল বাজারে পাওয়া গেলেও সেগুলো এড়িয়ে যাওয়া ভালো কেননা এগুলো তাজা নয়। এগুলো খেলে অসুস্থতা ও শরীর খারাপ করতে পারে। মৌসুমি ফল খান। মৌসুমি ফল ইমিউন সিস্টেমকে বাড়িয়ে দেয়।

চিনি

ঠাণ্ডা আবহাওয়ার সঙ্গে গরম চকলেট আপনার পছন্দের তালিকায় থাকলেও অনেক চিকিৎসক মনে করেন অতিরিক্ত চিনি ইমিউন সিস্টেমকে দুর্বল করে দিতে পারে। গবেষণা অনুযায়ী যারা অতিরিক্ত চিনি খান তাদের থেকে যারা বেশি পানি পান করেন তাদের ব্যাকটেরিয়া মোকাবিলা করার ক্ষমতা বেশি থাকে।

অ্যালকোহল

অ্যালকোহল শরীরকে দ্রুত ডিহাইড্রেটেড করে দেয়। এছাড়াও এটি অল্প সময়ে শরীরের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে বলে ঠাণ্ডা লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।  

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১০, ২০১৭
এমএসএ/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa