ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

আইন ও আদালত

হত্যা মামলায় অজ্ঞান পার্টির সদস্যের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৬, ২০২২
হত্যা মামলায় অজ্ঞান পার্টির সদস্যের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

বরিশাল: জুসের সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন করিয়ে হত্যার দায়ে অজ্ঞান পার্টির এক সদস্যকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন বরিশালের একটি আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) বরিশালের জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী ও অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক টিএম মুসা এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি খোকন সিকদার পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা।

জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী ও অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি লস্কর নুরুল হক জানান, রায়ে আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় আসামি পলাতক ছিলেন। হত্যার শিকার হয়েছেন বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা মোকসেদ আলী খান।

মামলার বরাতে আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. সবুজ জানান, মোকসেদ আলী খান ২০১৩ সালের ৮ মার্চ ঢাকা থেকে আল-ওয়ালিদ লঞ্চে রওনা দেন। পথে তাকে জুসের মধ্যে নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন করানো হয়। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তখন অজ্ঞান পার্টির সদস্য খোকন সিকদার তাকে লঞ্চের পিছনে নিয়ে নদীতে ফেলে দেয়। পরদিন বাবুগঞ্জের সন্ধ্যা নদী থেকে মোকসেদ খানের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় ২০১৩ সালের ১২ মার্চ বাবুগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন তার ছেলে শামীম খান। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের পরিদর্শক উথান চো ২০১৫ সালের ১২ মার্চ খোকনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট জমা দেন। বিচারক ২৫ জনের মধ্যে ১৭ জনের সাক্ষ্য নিয়ে রায় দিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৬, ২০২২
এমএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa