ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

আইন ও আদালত

ময়মনসিংহে মারামারি মামলায় যুবকের ২ বছর কারাদণ্ড

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৭ ঘণ্টা, জুলাই ২০, ২০২২
ময়মনসিংহে মারামারি মামলায় যুবকের ২ বছর কারাদণ্ড

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহে একটি মারামারি মামলায় ফরিদ আহম্মেদ (৪৫) নামের এক যুবককে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে আসামিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

   

বুধবার (২০ জুলাই) বিকেল ৪টায় ময়মনসিংহের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তিন নম্বর আমলি আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম সোহাগ এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ফরিদ আহম্মেদ নগরীর মামলগুদাম এলাকার মৃত আলী হোসেনের ছেলে।

সংশ্লিষ্ট আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. ইউসুফ আলী খান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, ২০১৬ সালের ১৭ এপ্রিল ময়মনসিংহ সদর উপজেলার একটি মারামারির ঘটনায় মো. হানিফ মিয়া বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ছয় আসামিকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।  

পরবর্তীতে ওই মামলায় র্দীঘ শুনানি শেষে সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত দণ্ডবিধির ৩২৪ ধারায় এক আসামিকে দুই বছরের স্শ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাস কারাদণ্ডের আদেশ দেন।  

তবে ওই মামলা দোষী প্রমাণ না হওয়ায় মামলার অন্য ৫ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে। খালাস প্রাপ্তরা হলেন- শাহাজাদা (৪০), রুমা (৩৫), রূপা (৩০), জোসনা (৪৫) ও আলম মিয়া (৪০)।  

এদিকে মামলার রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির ছোট বোন রূপা বেগম।  

তিনি বলেন, আদালতের রায়ে আমরা সন্তুষ্ট না। এই রায়ের বিরুদ্ধে আমরা উচ্চ আদালতে যাবো।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৭ ঘণ্টা, জুলাই ২০, ২০২২
এএটি
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa