ঢাকা, রবিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ জুলাই ২০২২, ০২ জিলহজ ১৪৪৩

আইন ও আদালত

বর্ষিজোড়া ইকোপার্কে বর্জ্য ফেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৮, ২০২২
বর্ষিজোড়া ইকোপার্কে বর্জ্য ফেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা হাইকোর্ট

ঢাকা: মৌলভীবাজারের বর্ষিজোড়া ইকো পার্কে পৌরসভার বর্জ্য ফেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) দায়ের করা রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতে বেলা’র পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন ব্যারিস্টার মো. আশরাফ আলী। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

বেলা’র পক্ষ থেকে জানানো হয়, রুলে মৌলভীবাজার জেলা সদর উপজেলাধীন লাউরাগা রিজার্ভ ফরেস্ট মৌজায় অবস্থিত ৮৮৬ একর আয়তনের বর্ষিজোড়া ইকো পার্কে অবৈধ গাছকাটা, পাহাড় কাটা, রাস্তা নির্মাণ ও বর্জ্যা ডাম্পিং থেকে রক্ষা ও সংরক্ষণে বিবাদীদের ব্যর্থতাকে কেন অবৈধ, আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত এবং জনস্বার্থ বিরোধী ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়েছেন।

একইসঙ্গে ইকোপার্কটিকে ধ্বংসের জন্য পৌরমেয়রের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ ও ক্ষতিপূরণ আদায় এবং জনস্বার্থে পার্কটিকে সংরক্ষণে বিবাদীদের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তাও জানতে চেয়েছেন উচ্চ আদালত। এছাড়া মৌলভীবাজার পৌরসভার ময়লা ইকো পার্কে ফেলার ওপর ৬ মাসের অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা দেন হাইকোর্ট।

মৌলভীবাজার জেলার সদর উপজেলায় লাউরাগা রিজার্ভ ফরেস্ট মৌজায় বর্ষিজোড়া সংরক্ষিত বন অবস্থিত। এর মোট আয়তন ৮৮৬ একর। সরকার প্রজ্ঞাপন জারি করে এ বনকে সংরক্ষিত বন ঘোষণা করেন।

সম্প্রতি ইকো পার্কের জায়গায় মৌলভীবাজার পৌরসভা ময়লা আবর্জনা ফেলা হচ্ছে মর্মে দেশের বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। এছাড়া আবর্জনা পরিবহনের সুবিধার্থে রাস্তা প্রশস্ত করার জন্য মৌলভীবাজার স্টেডিয়াম সংলগ্ন বনের টিলা কেটে মাটি সরানো হয়েছে। শহরের ময়লা আবর্জনা ও প্লাস্টিক বর্জ্য ফেলার কারণে বনের পরিবেশ দূষিত হচ্ছে ও দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে যা বন, বন্যপ্রাণীসহ পশুপাখি এবং জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বন বিভাগের লিখিত আপত্তি সত্ত্বেও বনের জায়গায় পৌরমেয়র বেআইনিভাবে ময়লা আবর্জনা ফেলে রাখা এক ধরনের জবরদখলের সামিল।
এমতাবস্থায় বেলা সব ধরনের ময়লা আবর্জনা ও প্লাস্টিক বর্জ্য অপসারণ করে বর্জ্য ডাম্পিং কার্যক্রম বঙ্গ, টিলা কাটা বন্ধ ও কাটা অংশে দেশীয় প্রজাতির বৃক্ষ দ্বারা বনায়ন করতে এবং ওই পরিবেশ বিরোধী কাজের জন্য এ রিট করা হয়েছে বলে বেলা’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

মামলার বিবাদীরা হলেন- পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রধান বন সংরক্ষক, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক,মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার, বিভাগীয় বন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ১০ জন।

বাংলাদেশ সময়: ২১২১ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৮, ২০২২
ইএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa