ঢাকা, শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

আইন ও আদালত

সাংবাদিক ইকরাম আহত: বাসচালকের বিচার শুরু 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২১
সাংবাদিক ইকরাম আহত: বাসচালকের বিচার শুরু 

ঢাকা: বাসের ধাক্কায় বাংলানিউজের সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট ইকরাম-উদ দৌলা আহত হওয়ার ঘটনায় তুরাগ পরিবহনের চালক ইকবাল হোসাইনের বিচার শুরু হয়েছে।  

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু বকর ছিদ্দিক এ আদেশ দেন।

 

আদালতে বাদীপক্ষে আইনজীবী খাদেমুল ইসলাম ও আসামিপক্ষে মো. মকিম মণ্ডল শুনানি করেন।  

এদিন আসামি ইকবালের পক্ষে তার আইনজীবী মকিম মণ্ডল চার্জ গঠনের তারিখ পেছানোর আবেদন করেন৷ সময় আবেদনের বিরোধিতা করে বাদীপক্ষে আইনজীবী খাদেমুল ইসলাম চার্জ গঠনের আর্জি জানান৷ শুনানি শেষে বিচারক সময়ের আবেদন নামঞ্জুর করে চার্জ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর আদেশ দেন। এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করা হয়েছে।  

এদিন আসামিপক্ষে পূর্বশর্তে জামিন আবেদন করা হয়৷ বিচারক সেই আবেদন মঞ্জুর করেন।  
 
গত বছর ১১ সেপ্টেম্বর মোটরসাইকেলে করে খিলক্ষেত যাওয়ার সময় লা মেরিডিয়ান হোটেলের সামনে সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে পেছন থেকে তুরাগ পরিবহনের একটি বাস ইকরামকে ধাক্কা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শী পথচারীরা বাংলানিউজকে জানান, খিলক্ষেত লা মেরিডিয়ানের সামনের সড়ক দিয়ে মোটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলেন সাংবাদিক ইকরাম। এ সময় পেছন থেকে দ্রুতগতির একটি বাস তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এরপর তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে, পরে বাংলাদেশ মেডিক্যালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

ইকরামকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসা পথচারী মো. সেলিম জানান, পেছন থেকে তুরাগ পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দিলে মোটরসাইকেলটি বাসের সামনের চাকার নিচে চাপা পড়ে। আর সাংবাদিক ইকরাম মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পাশে পড়ে গুরুতর আহত হন। পরে তাকে বাসের সামনের অংশের নিচ থেকে টেনে বের করা হয়।  

এ ঘটনায় গত বছর ১৫ সেপ্টেম্বর সাংবাদিক ইকরামের বোন তুরাগ পরিবহনের অজ্ঞাত চালককে আসামি করে খিলক্ষেত থানায় সড়ক পরিবহন আইনের ৯৮ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় গত ১৬ আগস্ট বাস চালক ইকবাল হোনাইনকে অভিযুক্ত করে সড়ক পরিবহন আইনের ১০৫ ধারায় অভিযুক্ত করে চার্জশিট দেন তদন্ত কর্মকর্তা খিলক্ষেত থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আশরাফুল ইসলাম।

এ মামলায় ইকবাল ঘটনার পর ২৪ সেপ্টেম্বর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইলে তা নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। পরে তিনি জামিনে মুক্তি পান।  

আরও পড়ুন: 

সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত বাংলানিউজের ইকরাম

বাংলানিউজের ইকরামের চিকিৎসায় বসুন্ধরা

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২১
কেআই/এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa