ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আইন ও আদালত

প্রতিবেশী নারীকে খুন: মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৫ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২১
প্রতিবেশী নারীকে খুন: মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন

ঢাকা: প্রতিবেশী এক নারীকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বরিশালের হিজলা থানার বড়জামিয়া গ্রামের আবদুর রাজ্জাক মাতবরকে সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আপিল বিভাগ।

একইসঙ্গে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো একবছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১৪ জুলাই) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে ভার্চ্যুয়াল আপিল বিভাগের ছয় বিচারপতির বেঞ্চ এ রায় দেন।

আসামি রাজ্জাককে যত দ্রুত সম্ভব কনডেম সেল থেকে বের করে সাধারণ সেলে নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আদালতে আসামিপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট এস এম আমিনুল ইসলাম শানু। রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল শেখ মোহাম্মদ মোরশেদ ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

২০০৭ সালের ৭ জুলাই দুপুরে আবদুর রাজ্জাক মাতবর প্রতিবেশী মনোয়ারা বেগমকে (৫৫) হত্যা করেন। এরপর স্থানীয় জনতা কিছুক্ষণের মধ্যে তাকে নিজ ঘরের মধ্যে বন্দি করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে তাকে গ্রেফতার করে।
এ ঘটনায় মনোয়ারার ছেলে হাবিবুল্লাহ তালুকদার বাদী হয়ে মামলা করেন। বিচার শেষে এ মামলায় বরিশালের আদালত ২০০৮ সালের ২১ অক্টোবর রাজ্জাক মাতবরকে মৃত্যুদণ্ড দেন।

নিয়ম অনুসারে মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদনের জন্য নথি হাইকোর্টে পৌঁছে। পাশাপাশি আপিল করেন আসামি। শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট ২০১৪ সালের ২০ জানুয়ারি মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখেন। পরে জেল আপিল করেন আসামি।

শুনানি শেষে বুধবার তার দণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন সাজা দেন আপিল বিভাগ।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৪ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২১
ইএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa