ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

আইন ও আদালত

ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় মানিকগঞ্জে একজনের যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০২০
ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় মানিকগঞ্জে একজনের যাবজ্জীবন

মানিকগঞ্জ: মানিকগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় সাদ্দাম মিয়া নামে এক যুবকের যাবজ্জীবন করাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২১ অক্টোবর) বিকেলে আসামির উপস্থিতিতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যালের বিচারক মোহাম্মদ আলী হোসাইন এ রায় দেন।

এ মামলায় আরো দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। প্রায় ৮ বছর পর এই মামলার রায় ঘোষণা হলো।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১২ সালের ৮ নভেম্বর আসামি সাদ্দাম মিয়া বিয়ের প্রলোভনে জেলার সাটুরিয়া উপজেলার গোলড়া গ্রামের ছানোয়ার হোসেনের মেয়ে দশম শ্রেণিতে ছাত্রী তুহিন সুলতানা আক্তার মিমকে নিজ বাড়িতে ধর্ষণ ও পরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এরপর তার গায়ের স্বর্ণালংকারসহ ঘরে থাকা নগদ ৭৫ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এই স্বর্ণালংকার অপর আসামি সম্ভু সরকার এবং তপু পালের কাছে বিক্রি করা হয়। এ ঘটনায় মিমের বাবা ছানোয়ার হোসেন বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরের বছর এই মামলার অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। মামলায় ১৮ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইবুন্যালের পিপি কে এম নুরুল হুদা রুবেল। আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন নজরুল ইসলাম বাদশা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০২০
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa