ঢাকা, বুধবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ সফর ১৪৪২

আইন ও আদালত

জয়পুরহাটে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০
জয়পুরহাটে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন জয়পুরহাট আদালত, ছবি: বাংলানিউজ

জয়পুরহাট: জয়পুরহাটে স্ত্রী হত্যার দায়ে বাবুল সরকার নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জয়পুরহাটের অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক গোলাম সারোয়ার এ রায় দেন।

 

দণ্ডপ্রাপ্ত বাবুল সরকার গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর উপজেলার শফিপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে।  

মামলা ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৮ সালে বাবুল সরকার ও জয়পুরহাটের পাঁচবিবি পৌর এলাকার তমেজ উদ্দীনের মেয়ে রাধাবাড়ী মহল্লার তানজিলা বেগমের বিয়ে হয়। এরপর স্বামী-স্ত্রী দু’জনই ঢাকার একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতেন। সেই চাকরির টাকায় তানজিলা পাঁচবিবিতে বাড়ি করার জন্য চার শতাংশ জমি কেনেন। কিন্তু তার স্বামী গাজীপুরে বাড়ি করার জন্য স্ত্রীকে চাপ দিতে থাকেন। এতে রাজি না হওয়ায় বাবুল সরকার ক্ষুব্ধ হয়ে ২০১৬ সালের ২২ ডিসেম্বর রাতে ঘুমন্ত তানজিলার মুখে বালিশ চাপা দিয়ে তাকে হত্যা করেন। পরদিন (২৩ ডিসেম্বর) নিহতের বড় বোন তৌহিদা বেগম বাদী হয়ে বাবুল সরকারকে আসামি করে পাঁচবিবি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর পুলিশ বাবুল সরকারকে গ্রেফতার করলে তিনি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। ২০১৭ সালের ২২ মে পুলিশ মামলাটি তদন্ত শেষে বাবুল সরকারের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। পরে শুনানি শেষে অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় বুধবার এ রায় দেন আদালত।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬০০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa