ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৭, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ সফর ১৪৪২

আইন ও আদালত

দেওয়ানিতে জরুরি দরখাস্ত-সাকসেশন মামলার শুনানি করা যাবে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩০ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০২০
 দেওয়ানিতে জরুরি দরখাস্ত-সাকসেশন মামলার শুনানি করা যাবে

ঢাকা: শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি  নিশ্চিত করে অধস্তন আদালতে দেওয়ানি মামলার জরুরি দরখাস্ত এবং সাকসেশন (উত্তরাধিকার সংক্রান্ত) মামলা শুনানি ও নিষ্পত্তি করা যাবে বলে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি।

শনিবার (১৮ জুলাই) এ সংক্রান্ত একটি প্র্যাকটিস নির্দেশনা সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন থেকে বিজ্ঞপ্তি আকারে জারি করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উপযুক্ত বিষয়ে নির্দেশিত হয়ে জানানো যাচ্ছে যে প্রধান বিচারপতি সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ বিচারপতিদের সঙ্গে আলোচনা করে এ মর্মে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক জারিকৃত স্বাস্থ্যবিধি এবং শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব কঠোরভাবে অনুসরণ করে অধস্তন আদালতে শুধুমাত্র দেওয়ানি মোকদ্দমা/মামলার জরুরি দরখাস্ত এবং সাকসেশন মামলার শুনানি ও নিষ্পত্তি করা যাবে।

এ বিষয়ে বিচারক এজলাস কক্ষে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনসহ সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণে প্রয়োজনীয় পদ্ধতি নির্ধারণ করবেন এবং শুনানি সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রম সম্পন্ন করবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বিচারকরা সাকশেসন মামলাগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রয়োজনীয় সাক্ষ্যগ্রহণসহ চূড়ান্তভাবে নিষ্পত্তি করবেন। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট আদালত সাকশেসন মামলার শুনানির জন্য প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট সময় নির্ধারণ করে শুনানি সম্পন্ন করবেন। দেওয়ানি মামলায় জরুরি দরখাস্ত এবং সাকসেশন মামলার শুনানি ও নিষ্পত্তির পদ্ধতি ও সময়সূচি এমনভাবে নির্ধারণ ও সমন্বয় করবেন, যাতে আদালত প্রাঙ্গণে ও ভবনে ঝুঁকিপূর্ণ জনসমাগম না ঘটে। আদালত প্রাঙ্গণ ও এজলাস কক্ষে প্রত্যেককে একে অপরের থেকে কমপক্ষে ছয় ফুট শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে এবং সব ধরনের জনসমাগম পরিহার করতে হবে। এজলাস কক্ষে একসঙ্গে ছয়জনের বেশি লোকসমাগম করা যাবে না। বর্ণিত শুনানিতে মামলার পক্ষদের উপস্থিতির আইনগত আবশ্যকতা না থাকলে এজলাস কক্ষে শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট মোকাদ্দমায় উভয়পক্ষে নিযু্ক্ত আইনজীবী উপস্থিত থাকবেন।

এজলাস কক্ষে প্রত্যেককে আবশ্যেই ফেস মাস্ক পরে থাকতে হবে। আদালতে প্রবেশের সময় প্রত্যেকের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করার ব্যবস্থা করতে হবে। এজলাস কক্ষে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনসহ শারীরিক দূরত্ব কঠোরভাবে বজায় রাখতে তাৎক্ষণিক উদ্ভূত যে কোনো পরিস্থিতি বিবেচনায় বিচারক শুনানি করা থেকে বিরত থাকাসহ অন্য আনুষাঙ্গিক ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হবে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বহাল থাকবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৩ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০২০
ইএস/এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa