bangla news

জেলা জজকে প্রত্যাহার করা নিয়ে হাইকোর্টের রুল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-০৪ ৪:৪৯:৪৪ পিএম
সুপ্রিম কোর্টের ফটো

সুপ্রিম কোর্টের ফটো

ঢাকা: পিরোজপুরের জেলা ও দায়রা জজ মো. আব্দুল মান্নানকে প্রত্যাহার এবং আইন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত করার আদেশ কেন আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন নজরে আসার পর বুধবার (০৪ মার্চ) বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে এ রুল জারি করেন।

দুই সপ্তাহের মধ্যে আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব ও উপ-সচিবকে (প্রশাসন-১) এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে তিনটি জাতীয় দৈনিকের প্রতিবেদন নজরে আনেন ব্যারিস্টার আব্দুল কাইয়ুম, ইউনুছ আলী আকন্দ ও মোহাম্মদ আবু হাসিম।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশ গুপ্ত। 

এ সময় আদালতে উপস্থিত থাকা সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এএফ হাসান আরিফের মতামত নেন হাইকোর্ট।

আদালতের আদেশ নিশ্চিত করেছেন ব্যারিস্টার আব্দুল কাইয়ুম ও ইউনুছ আলী আকন্দ।

মঙ্গলবার (০৩ মার্চ) পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ মো. আব্দুল মান্নানের আদালত দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় পিরোজপুর-১ (নাজিরপুর, পিরোজপুর সদর ও নেছারাবাদ) আসনের সাবেক এমপি এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়াল ও তার স্ত্রী জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী লায়লা পারভীনকে জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এরপর আইন মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে তাকে প্রত্যাহার এবং পিরোজপুরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ নাহিদ নাছরিনকে ভারপ্রাপ্ত বিচারকের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

নাহিদ নাছরিন এ দায়িত্ব পাওয়ার পর আউয়ালের পক্ষের আইনজীবী দেলোয়ার হোসেন পুনরায় আউয়াল দম্পতির জামিন পুনঃবিবেচনার জন্য আবেদন করেন। এ পরিপ্রেক্ষিতে ওইদিনই আউয়াল দম্পতিকে নিজের ক্ষমতাবলে জামিন দেন নাহিদ নাছরিন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৮ ঘণ্টা, মার্চ ০৪, ২০২০
ইএস/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আইন পিরোজপুর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-04 16:49:44