bangla news

শরীয়তপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে তলব

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-০১ ৫:৫২:৫৮ পিএম
হাইকোর্টের ফাইল ফটো

হাইকোর্টের ফাইল ফটো

ঢাকা: একটি হত্যা মামলায় একই সময়ে তিন আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে শরীয়তপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীনকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

আগামী ২৯ মার্চ তাকে স্বশরীরে হাইকোর্টে এসে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে হবে। ওই মামলায় দুই আসামির জামিন শুনানিকালে রোববার (১ মার্চ) বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী সাব্বির হামজা চৌধুরী ও রেজাউল করিম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন (বাপ্পী)।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন (বাপ্পী) বলেন, আদালত দুই আসামীকে জামিন দিয়ে একই সময়ে তিন আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে ২৯ মার্চ শরীয়তপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীনকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

এদিকে রেজাউল করিম জানান, ২০১৮ সালের ৫  জুলাই ভ্যান চালক খলিল ফকির হত্যার অভিযোগে দুইজনকে আসামি করে শরীয়তপুরের জাজিরা থানায় মামলা করা হয়। পরে মামলার অভিযোগপত্রে রুবেল চৌকিদার, লিটন সানি ও আলী হোসেন বেপারীকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। 

ওই মামলায় ২০১৮ সালের ১৯ জুলাই তিন আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ করেন শরীয়তপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীন। যেখানে তিনজনের একই সময় দেখানো হয়েছে।

পরবর্তীতে এ মামলার দুই আসামি লিটন সানি ও মো. আলী হোসেন বেপারী জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন জানান। ওই আবেদনের শুনানিতে বিষয়টি উঠে আসায় অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীনকে তলব করেন। একই সঙ্গে দুই আসামি লিটন সানি ও মো. আলী হোসেন বেপারীকে ৬ মাসের জন্য জামিন দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৭ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০২০
ইএস/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আদালত
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-01 17:52:58