bangla news

ফরিদপুরের এএসপিকে হাইকোর্টে তলব

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-২০ ৮:১৩:২৯ পিএম
হাইকোর্ট/ফাইল ফটো

হাইকোর্ট/ফাইল ফটো

ঢাকা: ফরিদপুরের সালথায় ছারোয়ার হত্যা মামলায় এক আসামির প্রকৃত বয়সের বিষয়ে ব্যাখ্যা জানতে ফরিদপুরের সংশ্লিষ্ট সহকারী পুলিশ সুপারকে (এএসপি) তলব করেছেন হাইকোর্ট।

ওই আসামির জামিন আবেদনের শুনানিকালে বুধবার (২০ নভেম্বর) এ আদেশ দেন বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

আগামী ১১ ডিসেম্বর তাকে আদালতে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে হবে।

আদালতে জামিন আবেদনকারীর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট ইলিয়াস আহমেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসের বাপ্পী।

আইনজীবীরা জানান, ছারোয়ার হত্যার ঘটনায় নিহতের ভাই মাহবুব মাতব্বর বাদী হয়ে ৪৪ জনের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালের ২৯ মে মামলা করেন। মামলায় তাজুলের বয়স দেখানো হয় ২০ বছর। এরপর তদন্ত শেষে পুলিশ ২০১৮ সালের ২৪ মে অভিযোগপত্র দেয়। এ মামলায় তাজুলকে অব্যাহতির সুপারিশ করেন তদন্ত কর্মকর্তা। এই অভিযোগপত্রে তাজুলের বয়স দেখানো হয় ২৮ বছর। এরপর সিআইডি অধিকতর তদন্ত শেষে গতবছরের ২৭ ডিসেম্বর তাজুলসহ সব আসামির (৪৪ জন) বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়। এখানে তাজুলের বয়স দেখানো হয়েছে ১৭ বছর। মামলার নথিতে তাজুলের বয়স তিন রকমের দেখে হাইকোর্ট সংশ্লিষ্ট এএসপিকে তলব করেন।   

বাংলাদেশ সময়: ২০১১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২০, ২০১৯
ইএস/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-20 20:13:29