bangla news

জয়পুরহাটে ধর্ষণ-হত্যা মামলায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২২ ১২:৫৮:১১ পিএম
আদালতে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা/ছবি: বাংলানিউজ

আদালতে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা/ছবি: বাংলানিউজ

জয়পুরহাট: জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার রায়কালী ইউনিয়নের গুচ্ছগ্রামে বসবাসকারী আরতী রাণী (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে দায়েরকরা মামলায় সাতজনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। এ সময় দু’জনকে ৫ লাখ ও পাঁচজনকে একলাখ টাকা করে অর্থদণ্ডের আদেশও দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে জয়পুরহাট নারী শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক এ বি এম মাহমুদুল হক জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- আক্কেলপুর উপজেলার মারমা পূর্ব পাড়ার সোহেল তালুকদার (২৭), একই উপজেলার দেওরা সোনার পাড়ার আফজাল হোসেন (৫০), দেওড়া গুচ্ছগ্রামের আব্দুর রাহিম, দেওরা সাখিদার পাড়ার ফেরদৌস আলী সাখিদার (৪৪), দেওরা সোনার পাড়ার মজিবর রহমান সোনার, জগতি পাড়ার রুহুল আমিন (৩৭) ও দেওরা গুচ্ছগ্রামের আজিজার রহমান (৫২)। 

আদালত সূত্রে জানা যায়, আক্কেলপুর উপজেলার গুচ্ছগ্রামে বসবারত উজ্জল মহন্ত তার বড় ছেলে উৎপল মহন্তকে নিয়ে চট্টগ্রামে কর্মকারের কাজ করতেন। এরই মধ্যে ২০১৬ সালে ৮ অক্টোবর রাত ৯টার দিকে আরতী রাণী প্রকৃতির ডাকে ঘরের বাইরে বের হলে কয়েকজন লোক জোড়পূর্বক তুলে নিয়ে যায়। এ সময় ঘরে থাকা তার মেয়ে অর্চনা রাণীর চিৎকারে প্রতিবেশী ও গ্রামবাসীরা তাকে খুঁজতে থাকে। এক সময় তাকে রাত ১০টার দিকে পোড়া পুকুরের পশ্চিম পাড়ের একটি ধান ক্ষেত থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে। পরে তাকে বগুড়ার আদমদিঘী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাবার পথে রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় আরতী রাণীর স্বামী বাদী হয়ে আক্কেলপুর থানায় ১০ অক্টোবর সাখিদার পাড়ার ফেরদৌস ও মারমার সোহেলসহ অজ্ঞাতনামা বেশ কয়েকজনের নামে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী ২০০৩) এর ৯ (৩) ধারামতে একটি মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ২০১৯ সালের ২৯ জুলাই আদালতে সাতজনের নাম উল্লেখ করে চার্জশিট জমা দিলে ১৯ জন স্বাক্ষীর শুনানি শেষে আদালত মঙ্গলবার এ রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট ফিরোজা চৌধুরী ও আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম তরুণ। 

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২২, ২০১৯
আরএ/এসএইচ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   মৃত্যুদণ্ড জয়পুরহাট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-22 12:58:11