ঢাকা, সোমবার, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৬ আগস্ট ২০১৯
bangla news

প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে সিলেটে রাষ্ট্রদ্রোহের দুই মামলা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-২১ ২:৪২:৫৩ পিএম
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলছেন প্রিয়া সাহা, ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলছেন প্রিয়া সাহা, ছবি: সংগৃহীত

সিলেট: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতনের মিথ্যা অভিযোগ করায় হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে সিলেটে রাষ্ট্রদ্রোহের দু’টি মামলা হয়েছে।

রোববার (২১ জুলাই) দুপুরে সিলেটের অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মুতাসিম বিল্লাহর আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ এনে প্রথম মামলাটি করেন নগর যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য রিমাদ আহমদ রুবেল।

একইদিন দুপুরে একই অভিযোগে সিলেটের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট প্রথম আদালতে অপর মামলাটি করেন সাবেক সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ নেতা অ্যাডভোকেট সারোয়র মাহমুদ।

রিমাদ আহমদ রুবেল বাংলানিউজকে বলেন, বিদেশের মাটিতে বসে রাষ্ট্র ও সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন প্রিয়া সাহা। বহিঃবিশ্বে বাংলাদেশ ও সরকারের ভাবমূতি ক্ষুণ্ন করেছেন তিনি। বিষয়টি তার দৃষ্টিগোচর হওয়াতে সংক্ষুব্ধ হয়ে তিনি মামলাটি দায়ের করেছেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজ উদ্দিন আহমদ বলেন, বিদেশে বসে রাষ্ট্র ও সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, দেশবিরোধী কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা এবং বাংলাদেশে সরকারের ভাবমুর্তি ক্ষুণ্ন করার অভিযোগ আনা হয়েছে মামলায়। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পরবর্তী দিন নির্ধারণের জন্য রেখেছেন।

অপর মামলার বাদী সারোয়র মাহমুদ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাংলাদেশ সম্পর্কে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য উপস্থাপন করেছেন প্রিয়া সাহা। যা বিশ্বের কাছে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছেন। তাই তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করেছেন তিনি। আদালত অভিযোগটি আমনে নিয়ে পরবর্তী নির্দেশের জন্য রেখেছেন।

গত বুধবার (১৭ জুলাই) প্রিয়া সাহা ও কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে যাওয়া এক রোহিঙ্গা নাগরিক যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের মিথ্যা তথ্য দেন। হোয়াইট হাউজে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার বিশ্বের ১৯টি দেশের ২৭ জনের সঙ্গে কথা বলেন ট্রাম্প। 

এ কথোপকথনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। সেখানে প্রিয়া সাহাকে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের অবস্থা সম্পর্কে ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে অভিযোগ করতে দেখা গেছে। এমনকি বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের বাঁচাতে তিনি ট্রাম্পকে অনুরোধও করেন। 

প্রিয়া সাহা বলেন, ‘বাংলাদেশে ৩৭ মিলিয়ন হিন্দু-বৌদ্ধ- খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমরা আমাদের দেশেই বসবাস করতে চাই। এখনো সেখানে ১৮ মিলিয়ন সংখ্যালঘু মানুষ বাস করছেন। আমার অনুরোধ, দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমি আমার বাড়ি হারিয়েছি। তারা আমার ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছে, আমার জমি দখল করে নিয়েছে। কিন্তু এখনো এর কোনো বিচার হয়নি।’

এক পর্যায়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প জানতে চান, এসব ঘটনা কারা ঘটাচ্ছে?

জবাবে প্রিয়া সাহা বলেন, ‘সরকার দলীয় রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় ইসলামী মৌলবাদী গোষ্ঠী এসব কর্মকাণ্ড চালায়।’

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৫ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০১৯
এনইউ/ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-21 14:42:53