ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ বৈশাখ ১৪২৬, ১৮ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

নৌপরিবহনের সাবেক প্রধান প্রকৌশলীকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৫ ৯:২৬:০৪ পিএম
হাইকোর্ট

হাইকোর্ট

ঢাকা: পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী ও সার্ভেয়ার ড. এস এম নাজমুল হকের জামিন বাতিল করে এক সপ্তাহের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে এ রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী কামরুন্নেছা রত্না। আসামি পক্ষে ছিলেন আইনজীবী শেখ মো. মোর্শেদ।

পরে আমিন উদ্দিন মানিক জানান, গত বছরের ১৩ আগস্ট ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ ড. এস এম নাজমুল হককে ৫০ হাজার টাকা বন্ডে জামিন দিয়েছিলেন। সেই আদেশের বিরুদ্ধে দুদক ১৬ অক্টোবর রিভিশন আবেদন করলে হাইকোর্ট এ বিষয়ে ২২ অক্টোবর রুল দিয়েছিলেন। মঙ্গলবার রিভিশনের রুল শুনানি শেষে রায় দেন আদালত। রায়ে রুল অ্যাবসুলেট ঘোষণা করে তাকে এক সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

আমিন উদ্দিন মানিক আরও জানান, গত বছরের ১৭ জানুয়ারি মেসার্স সৈয়দ শিপিং লাইন্সের মালিক জালাল উদ্দিন কর্তৃক নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরে জমা দেওয়া অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল অধ্যাদেশ (ISO 1976)এর ৫(ক) অনুযায়ী নকশা জমা হওয়ার ৪৫ দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় সংশোধনীসহ অনুমোদন দিতে হবে। কিন্তু নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী ও সার্ভেয়ার ড. এস এম নাজমুল হক উক্ত নৌযানের নকশা অনুমোদনের জন্য এবং নতুন নৌযানের নামকরণের অনাপত্তি প্রদানের জন্য মেসার্স সৈয়দ শিপিং লাইনের মালিক পক্ষের নিকট ১৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন। 

মালিক পক্ষ বাধ্য হয়ে আসামির দাকিকৃত ১৫ লাখ টাকার মধ্যে ৫ লাখ টাকা পূর্বে প্রদান করেন। বাকি টাকার জন্য চাপাচাপি করলে মালিক পক্ষ দুদককে বিষয়টি জানান। পরে ঘুষ নেওয়ার সময় দুদক ৫ লাখ টাকাসহ গত বছরের ১২ এপ্রিল হাতেনাতে তাকে গ্রেফতার করেন। পরে দুদকের সহকারী পরিচালক মো. আবদুল ওয়াদুদ শাহবাগ থানার মামলা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০১৯
ইএস/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14