ঢাকা, শনিবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ জুন ২০২২, ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

আইন ও আদালত

সেই এসিল্যান্ডের নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮১৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭
সেই এসিল্যান্ডের নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা

ঢাকা: ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আইনজীবীকে সাজা দেওয়া সেই সহকারী কমিশনার ভূমি (এসি ল্যান্ড) হাইকোর্টে হাজির হয়ে মৌখিকভাবে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। আদালত লিখিত আকারে দিতে বলে বৃহস্পতিবার আদেশের দিন ধার্য করেন।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) দুপুরে শুনানি শেষে বিচারপতি মো. হাবিবুল গনি ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আদেশের দিন ধার্য করেন।

এর আগে গত ১৭ ডিসেম্বর এক আইনজীবীকে সাজা দেওয়ার ঘটনায় তাকে হাইকোর্টে সশরীরে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়।



এ বিষয়ে বিরোদা রানির আইনজীবী মামুন মাহবুব তিনি বলেন, আজ আমরা মৌখিকভাবে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছি। আদালত বলেছেন, লিখিতভাবে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে। বৃহস্পতিবার লিখিতভাবে আদালতে ক্ষমা চাওয়া হবে। আদালত বৃহস্পতিবারই আদেশের দিন ধার্য করেছেন।

১২ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) একটি নামজারির মামলায় শুনানি করতে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে এসিল্যান্ডের কক্ষে বসেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট নিরোদ বিহারী রায়। এ নিয়ে বাকবিতণ্ডার জের ধরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ওই আইনজীবীকে ৫০০ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে একদিনের কারাদণ্ডাদেশ দেন সহকারী কমিশনার বিরোদা রানী রায়।

 

ভুক্তভোগী ওই আইনজীবীর অভিযোগ, সাজা দেওয়ার সময় এসিল্যান্ড তাকে বলেন, আমি আমার ক্ষমতা দেখালাম, পারলে আপনি আপনার ক্ষমতা দেখান।  

পরে বিষয়টি জেলা প্রশাসককে অবহিত করে স্থানীয় আইনজীবী সমিতি। এ ঘটনায় বিরোদা রানী রায়কে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় বদলি করা হয়। যদিও এখনও নতুন কর্মস্থলে যোগ দেননি তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭
ইএস/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa