ঢাকা, শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

আইন ও আদালত

পটুয়াখালীর গ্রামকে পৌরসভায় অন্তর্ভূক্তি কেন অবৈধ নয়

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩০২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭
পটুয়াখালীর গ্রামকে পৌরসভায় অন্তর্ভূক্তি কেন অবৈধ নয়

ঢাকা: পটুয়াখালী সদর উপজেলার ইটবাড়িয়া ও জৈনকাঠি ইউনিয়নের কিছু এলাকাকে পৌরসভায় অন্তর্ভূক্তি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

স্থানীয় দুই ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও এক বাসিন্দার রিটের শুনানি নিয়ে রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি এস এম এমদাদুল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর অবকাশকালীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।
 
আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান।


 
স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব ও উপ-সচিব, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার, পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এডিসি), পটুয়াখালীর পৌরসভার মেয়রসহ সংশ্লিষ্টদের চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
 
পরে ইশরাত হাসান বলেন, পটুয়াখালী সদর উপজেলার জৈনকাঠি ও কালিকাপুর ইউনিয়নের কয়েকটি মৌজাকে পটুয়াখালী পৌরসভায় অর্ন্তভূক্ত করা হয়। গত বছরের ২১ নভেম্বর ওই মৌজাগুলোকে শহর এলাকা হিসেবে ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।
 
ওই প্রজ্ঞাপনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন ইটবাড়িয়া ইউপির চেয়ারম্যান মো. মোজাম্মেল হক, জৈনকাঠি ইউপির চেয়ারম্যান মো. ফিরোজ আলম ও জৈনকাঠি ইউনিয়নের বাসিন্দা মো. মাইনুল ইসলাম।
 
ইশরাত হাসান বলেন, ওইসব গ্রামের বেশিরভাগ বাসিন্দা মৎস্য ও কৃষিজীবী। এখানে কৃষিভূমিও অনেক। তাই আইনত ওইসব গ্রামকে পৌরসভায় অন্তর্ভূক্ত করা সঠিক নয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯০০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭
ইএস/এএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa