ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

আইন ও আদালত

আমতলীতে হত্যার দায়ে ৪ জনের ফাঁসি, ২ জনের যাবজ্জীবন

উপজেলা করসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৬
আমতলীতে হত্যার দায়ে ৪ জনের ফাঁসি, ২ জনের যাবজ্জীবন বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বরগুনা: বরগুনার আমতলী উপজেলায় নয়া মিয়া হত্যা মামলায় ৪ জনের ফাঁসি ও ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন বরগুনা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

 

একই সঙ্গে ৩৭৯ ধারায় প্রত্যেক আসামিকে ৩ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

 

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় সব আসামির উপস্থিতিতে বরগুনা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহা. আবু তাহের এ রায় দেন।

আসামিদের মধ্যে মো. শহিদুল চৌকিদার, বারেক চৌকিদার, বশির মাতুব্বর ও মোয়াজ্জেমকে ফাঁসি এবং আ. রব চৌকিদার ও মজিবরকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মামালা সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ১০ এপ্রিল আমতলী উপজেলার খুড়িয়ার খেয়াঘাট এলাকার গরু ব্যবসায়ী নয়া মিয়া ৭০ হাজার টাকা নিয়ে কলাপাড়া থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে আসামিরা তাকে শহিদুল চৌকিদারের বাড়িতে তুলে নিয়ে যান। এসময় আসামিরা পাটাপুতা দিয়ে নয়া মিয়ার কোমরের নিচের দিকে থেথলে দেন।

পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও স্থানীয়রা শহিদুল চৌকিদারের বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করে আমতলী স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসেন। স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসার পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নয়া মিয়া মারা যান।

এ ঘটনায় নয়া মিয়ার ছেলে মো. নাসির বাদী হয়ে ছয়জনকে আসামি করে আমতলী থানায় মামলা দায়ের করেন। মামালায় সাক্ষ্য প্রমাণের ভিতিত্তে এ রায় দেন আদালত।

মামালার বাদী মো. নাসির উদ্দিন বলেন, আমার বাবাকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে এই সন্ত্রসীরা। আদালতের রায়ে আমরা সবাই খুশি। এসময় আসামিদের ফাঁসির রায় দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানান তিনি।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (এপিপি) অ্যাডভোকেট আক্তারুজ্জামান বাহাদুর বলেন, এ মামলায় মোট ১৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। যুক্তিতর্ক শেষে আদালত এ রায় দিয়েছেন। আমরা এ রায়ে খুশি।

মামলায় আসামীপক্ষের আইনজীবী কমল কান্তি দাস বলেন, আমরা এ রায়ে সন্তুষ্ট নই। তাই আমরা উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৬/আপডেট:১৪৫৩
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa