bangla news

প্রাণভিক্ষা নিয়ে কথা বলতে কারাগারে পরিবারের সদস্যরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৮-৩১ ৪:৫৭:১২ এএম

মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর সঙ্গে দেখা করতে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর ভেতরে ঢুকেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। তারা রাষ্ট্রপতির কাছে মীর কাসেমের প্রাণভিক্ষা চাওয়ার বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নিতে এ সাক্ষাত করছেন বলে পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে

গাজীপুর: মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর সঙ্গে দেখা করতে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর ভেতরে ঢুকেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। তারা রাষ্ট্রপতির কাছে মীর কাসেমের প্রাণভিক্ষা চাওয়ার বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নিতে এ সাক্ষাত করছেন বলে পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে।

বুধবার (৩১ আগস্ট) দুপুর পৌনে তিনটার দিকে কাশিমপুর কারাগেটে আসেন মীর কাসেমের পরিবারের নয়জন সদস্য। পরে কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে ভেতরে প্রবেশ করেন তারা।

মীর কাসেমের স্ত্রী খোন্দকার আয়শা খাতুন, দুই  মেয়ে সুমাইয়া রাবেয়া ও তাহেরা তাসনিম, দুই পুত্রবধূ শাহেদা তাহমিদা ও তহমিনা আক্তার এবং ভাতিজা মো. হাসান জামান খান ছাড়াও এ দলে আছে তিনজন শিশু।

এ কারাগারের কনডেম সেলে বন্দি আছেন দেশের শীর্ষ এই যুদ্ধাপরাধী।

কাশিমপুর কারাগার-২ এর জেলার নাসির আহমেদ জানান, ‘মীর কাসেম আলীর পরিবারের সদস্যদের কারা কর্তৃপক্ষ ডাকেনি। তারা স্বেচ্ছায় কারাগারে এসেছেন। শুনেছি, রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাওয়া না চাওয়ার বিষয়ে মীর কাসেমের সঙ্গে কথা বলবেন তারা।

বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ফাঁসি বহাল রেখে রিভিউ মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় কাশিমপুর কারাগারের ভেতর পড়ে শোনানো হয় মীর কাসেম আলীকে। এ সময় প্রাণভিক্ষার ব্যাপারে জানতে চাইলে, তিনি ভাবার জন্য কিছু সময় চান।

জেলগেটে পরিবারের সদস্যরা সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা না বললেও প্রাণভিক্ষার বিষয়েই তারা কথা বলবেন বলে জানিয়েছে সূত্র।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘন্টা, আগস্ট ৩১, ২০১৬
এএসআর

**
ফাঁসির মঞ্চ প্রস্তুত কাশিমপুরে
** মীর কাসেমের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছে তার পরিবারের সদস্যরা
** হাজার কোটি টাকার ম‍ালিক মীর কাসেমের বার্ষিক আয় ১৫ লাখ!

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2016-08-31 04:57:12