bangla news

ব্যবসায়ী সেন্টু হত্যার দায়ে গাজীপুরে চারজনের ফাঁসি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৫-২২ ৩:৫২:৪০ এএম

গাজীপুরের টঙ্গীর এরশাদনগরের ব্যবসায়ী মোকছেদ আলী সেন্টু (২৫) চাঁদার দাবিতে হত্যার দায়ে চারজনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদেরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অপর একটি ধারায় প্রত্যেককে ১৪ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

গাজীপুর: গাজীপুরের টঙ্গীর এরশাদনগরের ব্যবসায়ী মোকছেদ আলী সেন্টু (২৫) চাঁদার দাবিতে হত্যার দায়ে চারজনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদেরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অপর একটি ধারায় প্রত্যেককে ১৪ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- টঙ্গীর এরশাদনগর এলাকার মো. জাহাঙ্গীরের ছেলে মো. রুবেল ওরফে টাইগার রুবেল (৩৫), একই এলাকার আবদুল রউফের ছেলে বাবু (৩২) ও কালু মিয়ার ছেলে আশরাফ আলী (৩০) এবং টঙ্গীর আউচপাড়া এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে ছলেমান (৩১)। তারা পলাতক।

রোববার (২২ মে ) দুপুর পৌনে ১টার দিকে গাজীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. ফজলে এলাহি ভূঁইয়া এ রায় দেন।

আদালত দু’টি ধারায় রায় দেন। এর মধ্যে ৩০২ ধারায় হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড ও  ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা এবং ৩৮৫ ধারায় চাঁদা দাবির ঘটনায় প্রত্যেককে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি মো. মকবুল হোসেন কাজল জানান, চাঁদার দাবিতে ২০০৬ সালের ২৭ জানুয়ারি রাত সোয়া দশটার দিকে টঙ্গীর এরশাদনগর এলাকার বাড়ির পাশেই মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোকছেদ আলী সেন্টুকে কুপিয়ে হত্যা করেন আসামিরা। এ ব্যাপারে নিহতের বাবা বাদী হয়ে টঙ্গী থানায় মামলা করেন। আসামি চারজনই পলাতক রয়েছেন।

আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট ফয়েজ উদ্দিন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫০ ঘণ্টা, মে ২২, ২০১৬
এনএইচএস/এএসআর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2016-05-22 03:52:40