bangla news

বিচারপতি শামসুদ্দিনের বক্তব্য প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে করা রিট খারিজ

|
আপডেট: ২০১৬-০২-২৪ ২:০৬:০০ এএম
এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী

এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী

বিচার বিভাগ এবং উচ্চ আদালত সম্পর্কে আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরীর অবমাননা ও মানহানিকর বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে করা রিট খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

ঢাকা: বিচার বিভাগ এবং উচ্চ আদালত সম্পর্কে আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরীর অবমাননা ও মানহানিকর বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে করা রিট খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) উত্থাপিত হয়নি (নট টু প্লেস) মর্মে খারিজ করে দেন বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এস এম জুলফিকার আলীর পক্ষে এ রিট আবেদনটি দায়ের করেন তার আইনজীবী ব্যারিস্টার এহসানুর রহমান।

রিট আবেদনে বিবাদী করা হয় তথ্য সচিব, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি অথরিটি’র (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালককে।

ব্যারিস্টার এহসানুর রহমান পরে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, অবসরপ্রাপ্ত এ বিচারপতি ‍কিছুদিন ধরে বিচার বিভাগ, উচ্চ আদালত ও প্রধান বিচারপতি সম্পর্কে বিভিন্ন মন্তব্য করছেন। এ বক্তব্যগুলো গণমাধ্যমে প্রচারিত ও প্রকাশিত হচ্ছে। যাতে দেখা যায়, এ বক্তব্যগুলো মানহানি এবং আদালত অবমাননাকর। সংবিধানে(৩৯ অনুচ্ছেদ) তার বক্তব্য দেওয়ার জন্য স্বাধীনতা আছে। কিন্তু সেখানে কিছু বাধা-নিষেধও আছে। যেটা তিনি মানছেন না।

এছাড়া জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা-২০১৪ অনুসারে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশেও কিছু বাধা-নিষেধ রয়েছে। এ কারণে পত্রিকায় প্রকাশিত কয়েকটি প্রতিবেদন যুক্ত করে রিটটি দায়ের করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৬
ইএস/এএসআর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

আইন ও আদালত বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
db 2016-02-24 02:06:00