ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০ রজব ১৪৪৪

আইন ও আদালত

ডিজিটাল জামানার ছোঁয়া এবার বিচার বিভাগে

ইলিয়াস সরকার, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৩৭ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১৫
ডিজিটাল জামানার ছোঁয়া এবার বিচার বিভাগে

ঢাকা: হাতে আর নয়। এখন ল্যাপটপে সব কিছু হবে।

ভয়েস রেকর্ডের মাধ্যমে অটোমেটিকভাবে সাক্ষ্য নেওয়া হবে। বিচারকদের দেওয়া হবে এমন যন্ত্র।

ফিল্ড লেভেলের প্রত্যেক বিচারককে তিন মাসের মধ্যে দেওয়া হবে ল্যাপটপ।

ডিজিটাল যামানায় সবখানে এর ছোঁয়া লাগলেও বিচার বিভাগে এর থেকে কিছুটা দূরে। তাই বিচার বিভাগকেও এর আওতায় আনতে এ ধরনের উদ্যোগ নিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা।
 
তার আশা, বিচার বিভাগের ডিজিটালাইজেশনের এ উদ্যোগের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

সম্প্রতি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে এ বিষয়ে মন্ত্রীর উপস্থিতিতে প্রধান বিচারপতি মন্তব্য করার পর মিলেছে ল্যাপটপসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম।

অধঃস্তন আদালতের বিচারকদের মধ্যে ইতিমধ্যে বিতরণ করা হয়েছে ১২৫টি ল্যাপটপ ও দুইশ’ ট্যাব।
 
সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে গিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, সরকারের প্রতিটি সেক্টরে ডিজিটালাইজেশন কার্যকম আছে। পুলিশের সাব ইন্সপেক্টরদেরকেও ট্যাবলেটগুলো দেওয়া হয়েছে। আমাদের বিচারকরা কেউ পাচ্ছেন না। বিচারকদের হাতে লিখতে হচ্ছে। আমি বললাম, বিচার প্রশাসন তো সরকারের আলাদা কিছু না। এটাকে বাদ দিয়ে তো অন্য কিছু হবে না। তখন আমাদেরকে ১২৫টি ল্যাপটপ দিলো। এগুলো মাঠ পর্যায়ের বিচার বিভাগের কর্মকর্তাদের বিতরণ করা হয়েছে। আইনমন্ত্রী আশ্বস্ত করেছেন, ফিল্ড লেভেলের প্রত্যেক বিচারককে তিন মাসের মধ্যে ল্যাপটপ দেওয়া হবে।

এর একদিন পরই তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক আইনমন্ত্রীর কাছে বিচারকদের জন্য দুইশ’ ট্যাব হস্তান্তর করেন।

এর আগে আইন কমিশন মামলার জট কমানো ও দ্রুত বিচার নিষ্পত্তির লক্ষ্যে একটি কার্যপত্র প্রস্তুত করেছেন।

এতে বলা হয়, মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে সমগ্র বিচার ব্যবস্থাকে ডিজিটালাইজেসনের উদ্যোগ নিতে হবে। সহকারী জজসহ প্রত্যেক বিচারকের জন্য একজন করে দক্ষ স্টেনোগ্রাফার নিয়োগ দিতে হবে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে বিচারকদের নিজ হাতে সাক্ষীর জবানবন্দি রেকর্ড করার পরিবর্তে কম্পিউটার টাইপ চালু করা দরকার। প্রত্যেক আদালতে প্রিন্টারসহ একটি কম্পিউটার ও আরও তিনটি মনিটর সরবরাহ করতে হবে।

বিচার কাজে স্বচ্ছতা আনার লক্ষ্যে সাক্ষীর জবানবন্দি স্টেনোগ্রাফার কম্পিউটারে টাইপ করবেন এবং তা সঠিকভাবে রেকর্ড হচ্ছে কি না তা অবলোকন করার জন্য বিচারকসহ উভয়পক্ষের আইনজীবীদের সম্মুখে একটি করে মোট তিনটি মনিটর থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৩৭ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১৫
ইএস/জেডএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa