ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২৩ শাবান ১৪৪৫

আইন ও আদালত

ফরিদপুরে ফেনসিডিল বহনের দায়ে নারীর যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৪
ফরিদপুরে ফেনসিডিল বহনের দায়ে নারীর যাবজ্জীবন

ফরিদপুর: বাসে করে ২৫ বোতল ফেনসিডিল বহনের দায়ে এক নারীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে তাকে আরও তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

মামলা দায়েরের প্রায় ১১ বছর পর এ রায় দিলেন আদালত।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ফরিদপুরের অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক অশোক কুমার দত্ত এ রায় দেন।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ওই নারীর নাম কাকলী বেগম (২৯)। তিনি যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার নাভারণ ইউনিয়নের তুলোতলা গ্রামের বাসিন্দা। রায় দেওয়ার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আদালতে হাজির ছিলেন না। রায়ের সঙ্গে আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের ২৬ আগস্ট যশোর থেকে চাকলাদার পরিবহনের একটি বাসে ২৫ বোতল ফেনসিডিল নিয়ে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক দিয়ে বরিশালের দিকে যাচ্ছিলেন ওই নারী। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পারে ফরিদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। এরপর ওইদিন বিকেল পাঁচটার দিকে অধিদপ্তরের একটি দল সদর উপজেলার কানাইপুর ট্রাক স্ট্যান্ড এলাকায় ওই বাসটির পথরোধ করে। তল্লাশি করে ওই নারীর কাছে ২৫ বোতল ফেনসিডিল পাওয়া যায়।

এই ঘটনায় ওইদিনই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ফরিদপুর সদর সার্কেলের পরিদর্শক মোহাম্মদ জাকিরুজ্জামান বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

এ মামলাটি তদন্ত করে ২০১৩ সালের ৩ অক্টোবর ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিজয় কুমার মজুমদার কাকলি বেগমকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি নওয়াব আলী মৃধা বলেন, ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯(১) ধারায় এ সাজা দেওয়া হয়েছে। এ মামলার রায়ে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ফলে অপরাধীদের অপরাধ করে পার পাওয়ার সুযোগ নেই জেনে সমাজে অপরাধ প্রবণতা কমে আসবে। আমরা এ রায়ে সন্তুষ্ট।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৪
এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।