ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৮, ২৪ জুন ২০২১, ১৩ জিলকদ ১৪৪২

ভারত

বাঙালি হতে চাইছে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪৫৫ ঘণ্টা, জুলাই ১, ২০২০
বাঙালি হতে চাইছে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি

কলকাতা: বিজেপি যে শুধুমাত্র বাঙালিদেরই কথা বলে তা প্রমাণে আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি বাহিনী। তবে রাজ্যের রাজনৈতিক নিরিখে প্রথম থেকেই বিজেপিকে হিন্দি বলয় বা হিন্দিভাষীর পার্টি হিসেবে তকমা দিয়ে রেখেছে রাজ্যের অন্য রাজনৈতিক দলগুলো। আর সে কারণেই কেন্দ্রে তিন তিনবার বিজেপি ক্ষমতা ধরে রাখলেও পশ্চিমবঙ্গে এখনও সেভাবে হুল ফোটাতে পারেনি এ পদ্মবাহিনী।

২০১৪ সাল থেকে বিজেপি সমগ্র ভারতে প্রবল দাপট দেখাতে সক্ষম হলেও বঙ্গে এখনো সেভাবে ঝড় তুলতে পারেনি। তবে গত লোকসভা ভোটের নিরিখে দলটি পশ্চিমবঙ্গে ৪২টি আসনের মধ্যে ১৮ আসনে জয়লাভ করেছে।

পাশাপাশি সবমিলিয়ে ৪০ শতাংশের মতো ভোট পেয়েছিল।

আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। গত লোকসভা ভোটে এহেন অনুকূল পরিবেশ উপলব্ধি করে দলে বেশি করে অবাঙালি মুখ বাদ দিয়ে বাঙালিদের নেওয়ার কৌশল নিয়েছে বিজেপি।

দলটিতে সদ্যগঠিত রাজ্যকমিটি থেকে তিনজন অবাঙালি পদাধিকারীকে বাদ দেওয়া হয়েছে। যারা হলেন- রাজকুমারী কেশরী, মনোজ টিগ্গা ও বিজয় ওঝা। যাদের প্রত্যেকেই রাজ্য বিজেপির গুরুত্বপূর্ণ সম্পাদক পদে ছিলেন।

তার বদলে রাজ্য বিজেপির ক্ষমতায় আনা হয়েছে শিবাজী সিংহ রায়, সোমনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো বাঙালি নেতাদের। সবমিলিয়ে উঁচু থেকে নিচুতলার নেতৃত্বে বাঙালিদের প্রাধান্য দিচ্ছে বিজেপি। রাজ্য বিজেপির সূত্রে জানা যাচ্ছে, এ পরিকল্পনা আসলে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পরামর্শে।

সাম্প্রতিক প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর ভাষণে বারবার বাঙালি আবেগ উঠে আসার বিষয়টা নজরে এসেছে। তাই দলের সর্বোচ্চ নেতৃত্বদের পদাঙ্ক অনুসরণ করেই পশ্চিমবাংলার উর্বর মাটিতে পদ্মফুল ফোটাতে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে ময়দানে নেমেছে বিজেপি বাহিনী। তবে এ পরিকল্পনা কতোটা ফলপ্রসূ হবে তা বোঝা যাবে পশ্চিমবঙ্গের আগামী নির্বাচনের ফলাফলে।

বাংলাদেশ সময়: ০৪৫৩ ঘণ্টা, জুলাই ০১, ২০২০
ভিএস/ডিএন/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ভারত এর সর্বশেষ

Alexa