bangla news

পশ্চিমবঙ্গে লকডাউনের সময় বাড়লো আরও ৪ দিন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-২৪ ৮:০৬:২৭ পিএম
ছবি- প্রতীকী

ছবি- প্রতীকী

কলকাতা: ভারতে করোনা পরিস্থিতি ধীরে ধীরে আরও ভয়ঙ্কর হচ্ছে। এর ছোবল থেকে বাদ পড়েনি পশ্চিমবঙ্গও। সেখানেও বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। সার্বিক পরিস্থিতিতে এ রাজ্যে লকডাউনের সময়সীমা আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। এর আগে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছিল আগামী ২৭ মার্চ পর্যন্ত। পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি বিবেচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

মমতা বলেন, পরিস্থিতি আরও সঙ্গীন হয়ে উঠছে। আমরা এক ভয়ঙ্কর সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে আছি। গোটা দুনিয়ায় প্রথম ৬৭ দিনে ১ লাখ মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছে। দ্বিতীয় ফেজে ১১ দিনে ১ লাখ লোক এবং এরপর মাত্র ৪ দিনে নতুন করে আরও ১ লাখ লোক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। এ পরিস্থিতিতে সবাই ঘরের মধ্যেই থাকুন। যত কষ্ট হোক বাসা থেকে বের হবেন না।

এদিন কলকাতার বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল ঘুরে করোনা মোকাবিলায় হাসপাতালগুলোর প্রস্তুতি তদারক করেন। এসময় ডাক্তার ও নার্সদের হাতে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার তুলে দেন ও এ পরিস্থিতিতে সরকার তাদের পাশে আছে বলে আশ্বস্ত করেন। 

স্বাস্থ্যকর্মীদের পাশাপাশি সুইপারদেরও একই আশ্বাস দিয়ে মমতা বলেন, আমরা জানি রোগীদের সব থেকে কাছে থাকেন আপনারা।

এদিকে পুলিশকে কড়া হাতে করোনা প্রতিরোধে করণীয় বাস্তবায়নের নির্দেশ দেন মমতা। লকডাউনকালে কেউ রাস্তায় বের হলে ১ হাজার রুপি জরিমানা বা ছয় মাসের জেলের নির্দেশনা আছে। এরই মধ্যে এসব নির্দেশ অমান্য করায় ২৭০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওইসব মানুষ কেন রাস্তায় নেমেছেন এর সঠিক উত্তর দিতে না পারায় তাদের গ্রেফতার করা হয়। 

শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয় লকডাউন হতে চলেছে গোটা ভারতই। ইতোমধ্যে দিল্লি, পাঞ্জাবসহ অনেকগুলি রাজ্যে কারফিউ জারি হয়েছে। এরই মধ্যে ভারতে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫৫২ জন, মৃত ১০ জন। পশ্চিমবঙ্গে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৯ জন। 

বাংলাদেশ সময়: ২০০০ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২০
ভিএস/এইচজে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

কলকাতা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2020-03-24 20:06:27