bangla news

এনআরসি নিয়ে মোদী-অমিত দ্বন্দ, দাবি মুখ্যমন্ত্রীর 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২০ ১২:০৮:২৮ এএম
নরেন্দ্র মোদী (বায়ে), অমিত শাহ (ডানে)। ছবি- সংগৃহীত

নরেন্দ্র মোদী (বায়ে), অমিত শাহ (ডানে)। ছবি- সংগৃহীত

কলকাতা: নাগরকিত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) ও নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়েছে। এরই মাঝে এ নিয়ে তাদের দুজনের কথায় মতান্তর লক্ষ্য করা যাচ্ছে বলে দাবি করেছেন ছত্তিসগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ সিং বাঘেল।  

সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে এ কথাই জানা ভূপেশ সিং। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলছেন, ভারতে এনআরসি কার্যকর করা হবে না। আবার অন্যদিকে অমিত শাহ দাবি করছেন, সিএএ, এনপিআর হচ্ছে এনআরসিরই ধাপ। তাহলে সত্যিটা কে বলেছেন? মিথ্যাটাই বা কে বলছেন? মনে হচ্ছে দুই নেতার মধ্যে এ নিয়ে সংঘাত তৈরি হয়েছে। আর সে কারণেই ভুগছে গোটা দেশ।  

এর আগে সংসদে অমিত শাহ ঘোষণা করেন, গোটা দেশজুড়ে এনআরসি করবে সরকার। এরপরই সংসদে পাশ হয় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের পর সিএএ বিল পরিণত হয় আইনে। এরপরই  সিএএ ও এনআরসির বিরোধিতায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সারা ভারত।

জনতার ক্ষোভ সামাল দিতে দিল্লির রামলীলা ময়দানে প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেছিলেন, ১৩০ কোটি দেশবাসীকে আশ্বস্ত করতে চাই, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে আসামে এনআরসি হয়েছে। ভারতে  চারদিকে মিথ্যা রটানো হচ্ছে। বিরোধী অনেক নেতা দাবি করছেন, গোটা দেশে এনআরসি করা হবে, আর তা করতে বিশাল অর্থ ব্যয় হবে কেন্দ্রীয় সরকারের। কিন্তু যে বিষয়ে কোনো বিল পাশ হয়নি, তার জন্য কেন মাথা ঘামাচ্ছেন?

বাংলাদেশ সময়: ০০০৬ ঘণ্টা, ২০ জানুয়ারি, ২০২০
ভিএস/এইচজে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

কলকাতা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2020-01-20 00:08:28