bangla news

রাজনৈতিক রং দেখে সহযোগিতা করি না: নোবেলজয়ী অভিজিৎ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২১ ৮:৩২:১৮ পিএম
দিল্লিতে নোবেলজয়ী অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, ছবি: সংগৃহীত

দিল্লিতে নোবেলজয়ী অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, ছবি: সংগৃহীত

কলকাতা: ‘আমি পেশাদার অর্থনীতিবিদ। তাই আমার কাছে কেউ অর্থনীতি নিয়ে প্রশ্ন করলে, আমি কখনোই জানতে চাইব না প্রশ্নকারীর রাজনৈতিক রং কী। পেশাদার হিসেবে আমি প্রশ্নের উত্তর দেব।’

সম্প্রতি নোবেল জয়ের পর ভারত সফরে এসে এমনই বলেছেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, ভারতে লোকসভা ভোটের আগে কংগ্রেস ইস্যু হিসেবে ‘ন্যায়’ প্রকল্প (গরিবের নূন্যমত আয়) নিয়ে সাহায্য চেয়েছিল। আমি সহায়তা করেছি। একইভাবে বিজেপি যদি অর্থনীতি নিয়ে কোনো সহায়তা চায় নিশ্চই করব। আমি রাজনৈতিক রং দেখব না।

আপাতত একাই ভারতে এসেছেন তিনি। একইসঙ্গে নোবেলজয়ী স্ত্রী এস্থার দুফলো আসেননি সঙ্গে। মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন তিনি। এরপর ওইদিনই কলকাতায় আসবেন।

অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় নোবেল জয়ের পর একাধিক বিষয়ে বারবার বিজেপির নেতা-মন্ত্রীদের আক্রমণের মুখে পড়েছেন। তিনি সেই আক্রমণের জবাবও দিয়েছেন। 

বিশ্বজয়ী এ অর্থনীতিবিদ বলেন, আমি গুজরাট, উত্তর প্রদেশ, হরিয়ানার মতো বিজেপি শাসিত অনেক রাজ্যেই কাজ করেছি। কোনো রাজ্যেই আমার একবারও মনে হয়নি যে, আমি সেখানে বামপন্থী হিসেবে বিবেচিত হয়েছি।

‘আমি একজন প্রফেশনাল। আমার কাছে লোকসভা ভোটের আগে কংগ্রেস জানতে চেয়েছিল, একজন গরিবের হাতে ন্যূনতম কত অর্থ থাকলে সেই পরিবার দারিদ্র্য থেকে উত্তরণে সামান্য সাহায্য পাবে। আমি সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিলাম। তবে কংগ্রেস তা কাজে লাগাতে পারেনি। সেটা অবশ্য ওই রাজনৈতিক দলের বিষয়। মঙ্গলবার বিজেপি যদি কোনো সহযোগিতা চায়, আমি করব।’

অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবারই (২১ অক্টোবর) যান দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে। সেখানে নিজের ফেলে আসা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্মৃতি রোমন্থন করেন। এছাড়া এ দিনই তার নতুন বই প্রকাশ হয় দিল্লির একটি হোটেলে।

মঙ্গলবার বিকেলে তার আরেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কলকাতার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে আসবেন তিনি। সবমিলে স্বাভাবিকভাবেই পশ্চিমবঙ্গবাসী অপেক্ষা করছে বাঙালি নোবেলজয়ীকে স্বাগত জানাতে।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০১৯
ভিএস/টিএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-21 20:32:18