bangla news

পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি-তৃণমূল কর্মীদের সংঘর্ষে নিহত ৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-০৯ ১:৩৭:৩৫ এএম
বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতীকী ছবি

বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতীকী ছবি

ঢাকা: পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত চারজন নিহত হয়েছেন।

শনিবার (০৮ জুন) স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় জেলাটির সন্দেশখালী এলাকার ন্যাজাটে পার্টি অফিসে দলীয় পতাকা সরানোকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষ হয়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, শনিবার সন্ধ্যায় সন্দেশখালীতে বুথ কমিটির বৈঠক হচ্ছিল। এসময় পার্টি অফিসে লাগানো পতাকা সরানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়।

যে পার্টি অফিসে বুথ কমিটির বৈঠক হচ্ছিল, সেখানে কয়েকদিন আগে বিজেপি তাদের দলীয় পতাকা লাগিয়ে দেয়। শনিবার সে পতাকা নামিয়ে নিজেদেরটা লাগাতে চান তৃণমূলের কর্মীরা। এতে বাধা দেয় বিজেপি। পরে শুরু হয়ে যায় পাল্টাপাল্টি আক্রমণ।

রাজ্যের মন্ত্রী এবং উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূলের সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক দাবি করেছেন, সংঘর্ষে নিহত কায়েম মোল্লা (২৪) তাদের সমর্থক।

এদিকে, রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু দাবি করছেন, সংঘর্ষে তাদের দলের পাঁচ কর্মী নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে সুজিত মণ্ডল, তপন মণ্ডল ও সুকান্ত মণ্ডল নামে তিনজনের মরদেহ পাওয়া গেছে। বাকি দুইজনের মরদেহ কৌশলে পুলিশ সরিয়ে ফেলেছে বলে তার অভিযোগ। 

তিনি বলেন, আমাদের দলের আরও চারজন নিখোঁজ। এর মধ্যে শঙ্কর মণ্ডল এবং দেবদাস মণ্ডল নামে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে বলে আমরা খবর পেয়েছি। কিন্তু পুলিশ মৃত সংখ্যা কমিয়ে দেখাতে তাদের মরদেহ সরিয়ে ফেলেছে।

এদিকে, তৃণমূল নেতা জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, আমাদের এক কর্মী নিহত হয়েছেন। বিজেপির লোকেরা তাকে গুলি করে মেরেছে।

বাংলাদেশ সময়: ০১৩০ ঘণ্টা, জুন ০৯, ২০১৯
টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   কলকাতা ভারত
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-09 01:37:35