bangla news

এবারও পূর্ণমন্ত্রী পায়নি বাংলা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-৩১ ৫:৫৫:৫৮ এএম
মোদীর শপথের দিন বাংলায় লাড্ডু বিতরণ করেন বিজেপি সমর্থকরা। ছবি: বাংলানিউজ

মোদীর শপথের দিন বাংলায় লাড্ডু বিতরণ করেন বিজেপি সমর্থকরা। ছবি: বাংলানিউজ

কলকাতা: আনুষ্ঠানিকভাবে দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী শপথ নিলেন নরেন্দ্র মোদী। সঙ্গে রাষ্ট্রপতির ভবনে শপথ নিলেন ৫৭জন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী। সবাইকে শপথ বাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি রাজনাথ কোবিন্দ। 

পূর্ণমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন ২৪জন। স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী হলেন ৯জন। প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করেছেন আরও ২৪জন সংসদ সদস্য (এমপি)। 

এদিকে গেল নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে ভালো ফল করেছে বিজেপি। বলা যায় মমতার দূর্গে, মোদীর আঘাত। রাজ্যের ৪২টি লোকসভা আসনের মধ্যে ১৮টি দখল করেছে দলটি। ফলে পশ্চিমবঙ্গে লাখ টাকার প্রশ্ন ছিল বাংলা থেকে মোদীর মন্ত্রিসভায় পূর্ণমন্ত্রী দায়িত্বে কারা আসছেন! 

নাম ঘোরা-ফেরা করছিল কমপক্ষে জনাপাচেকের। কিন্তু শেষ মুহূর্তে রাজ্যের ভাগ্যে জুটলো দুই প্রতিমন্ত্রী। আসানসোল লোকসভার বাবুল সুপ্রিয়ো ও রায়গঞ্জের দেবশ্রী চৌধুরী। দুজনের কপালেই জুটেছে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। 

তবে পূর্ণমন্ত্রিত্ব পেলেন অমিত শাহ। এর আগে তিনি তিনবার সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি ছিলেন। পূর্ণমন্ত্রী হিসেবে প্রথমবার মন্ত্রিসভায় সামিল হলেন মোদীর সেনাপতি অমিত শাহ। গতবারের মতো এবারও মন্ত্রিসভায় থাকছেন রাজনাথ সিং, নিতিন গড়কড়ি, নির্মলা সীতারমন, স্মৃতি ইরানিরা। 

বাদ পড়লেন সুরেশ প্রভু, মানেকা গান্ধী, অরুণ জেটলি, সুষমা স্বরাজসহ ২২জন। তবে যারা দায়িত্ব পেলেন কাকে কোন দপ্তর দেওয়া হবে এখনো জানা যায়নি।

২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচন। এবার মুখ্যমন্ত্রী পদের ক্ষমতা দখলে পূর্ণশক্তি দিয়ে ঝাপিয়ে পড়বে গেরুয়া শিবির। পাশাপাশি রাজ্যে বিজয় মিছিল করতে আসতে পারেন মন্ত্রী অমিত শাহ! 

এমনই তথ্য রাজ্য বিজেপি অফিসের হাওয়ায় ভাসছে। মন্ত্রিসভার শপথে গোটা দেশের সাথে আনন্দে মাতলের পশ্চিমবঙ্গের বিজিপি সমর্থকরা। 

মোড়েমোড়ে বিশাল স্ক্রিনে লাইভ শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান চালালো তারা। পাশাপশি রাজ্যজুড়ে কোথাও কমলাভোগ কোথাও বাড়ি বাড়ি বিলানো হলো লাড্ডু। চললো মোদীর উপাসনা।

বাংলাদেশ সময়: ০৫৪৭ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০১৯
ভিএস/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নরেন্দ্র মোদী
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

কলকাতা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-05-31 05:55:58