ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৪ মে ২০১৯
bangla news

‘বিজেপির আমলে ভারতে সন্ত্রাসবাদ বেড়েছে ২০৭ শতাংশ’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-১৫ ৮:২২:৫৫ এএম
জনসভায় বক্তব্য রাখছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সঙ্গে অন্যরা

জনসভায় বক্তব্য রাখছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সঙ্গে অন্যরা

কলকাতা: ভারতের লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফায় মঙ্গলবার (১৪ মে) পরপর তিনটি জনসভা করলেন তৃণমূল নেত্রী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কলকাতার যাদবপুর লোকসভা আসনে অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী এবং দক্ষিণ কলকাতা আসনে মালা রায়ের সমর্থনে জনসভা করেন তিনি।

তিনটি সভা থেকেই চড়া সুরে বিরোধীদের আক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে তার আক্রমণের মূল লক্ষ্য ছিলেন বিজেপি প্রধান নরেন্দ্র মোদী। এদিন মমতা বলেন, বিজেপি বলেছিল সন্ত্রাসবাদ দমন করবো, কিন্তু ভারতে তাদের মেয়াদে সন্ত্রাসবাদ ২০৭ শতাংশ বেড়েছে, আমার কাছে সে পরিসংখ্যান আছে।

তিনি আরও বলেন, মোদী বলেছিলেন ক্ষমতায় এলে ভারতবাসীকে ১৫ লাখ রুপি করে দেবেন, বছরে ২ কোটি লোককে চাকরি দেবেন, কিন্তু বাস্তবে তার কিছুই হয়নি।

নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রসঙ্গে মমতা বলেন, কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠিয়ে আমার কিছু করতে পারবে না। আমি অনেক বাহিনী দেখে এসেছি, আমাকে ওসব দেখিয়ে লাভ নেই। এই বাংলা কাউকে ভয় পায় না, এই বাংলাতেই ১৯০৫ সালে বঙ্গভঙ্গ রদ করেছিলেন রবীন্দ্রনাথ।

পাশাপাশি মমতা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নেওয়া বিভিন্ন প্রকল্পের চিত্র তুলে ধরে সেগুলোর সুযোগ সুবিধা বর্ণনা করেন। 

যাদবপুর এবং দক্ষিণ কলকাতা দু’টো কেন্দ্রই গত নির্বাচনে তৃণমূলের দখলে থাকলেও এবারের নির্বাচনে কড়া প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। 

যাদবপুর কেন্দ্রে অভিনেত্রী মিমির প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রার্থী বিজেপির অনুপম হাজরা এবং সিপিআইএম’র  বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। অন্যদিকে দক্ষিণ কলকাতা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মালা রায়ের প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিআইএম’র অধ্যাপক নন্দিনী মুখার্জী এবং বিজেপির চন্দ্র কুমার বোস।

বাংলাদেশ সময়: ০৮২১ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০১৯
বিএস/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-15 08:22:55