ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ মে ২০১৯
bangla news
শপথ অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ

বুদ্ধদেবের বাড়িতে তৃণমূল নেতা পার্থ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৫-১৯ ৩:১৯:৫৩ এএম

 

মুখ্যমন্ত্রী মমতার শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ জানাতে সদ্য সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাড়িতে গিয়ে আমন্ত্রণপত্র দিয়ে এসেছেন তৃণমূল নেতা ও নয়া বিধানসভায় উপ-নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

পাম অ্যাভেনিউ (কলকাতা) থেকে: মুখ্যমন্ত্রী মমতার শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ জানাতে সদ্য সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের বাড়িতে গিয়ে আমন্ত্রণপত্র দিয়ে এসেছেন তৃণমূল নেতা ও নয়া বিধানসভায় উপ-নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে তিনি দক্ষিণ কলকাতার পাম অ্যাভিনিউ’র সরকারি ফ্ল্যাটে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ও তার স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্যের হাতে মমতা ব্যানার্জির পক্ষ থেকে আমন্ত্রণপত্র দিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে প্রসঙ্গে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমন্ত্রণপত্র দিয়ে আমি মমতা ব্যানার্জিকে মোবাইল ফোনে এসএমএস করে জানিয়ে দেই।’

পার্থ বলেন, ‘সকাল ৮টা ৩৫ নাগাদ আমি ওনার বাড়ি যাই। তখন বোধহয় তিনি ঘুমোচ্ছিলেন বা বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। নিরাপত্তারক্ষীরা আমাকে ভেতরে নিয়ে যায়। পরে বুদ্ধবাবুও আমাকে এসে ভেতরে নিয়ে যান।’

পার্থ বলেন, ‘মমতা ব্যানার্জির নির্দেশমতো আমি তার ও মিসেস ভট্টাচার্যের হাতে আমন্ত্রণপত্র তুলে দেই এবং শপথ অনুষ্ঠানে যাওয়ার অনুরোধ করি।’

পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘রাজ্যের জীবিত সাবেক মুখ্যমন্ত্রীদের মধ্যে বুদ্ধদেব ছাড়া আর কেউ নেই।’

অনুষ্ঠানে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য যাবেন কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে পার্থ বলেন, ‘বুদ্ধবাবু তো অনেক বিষয়েই দলের ওপর নির্ভর করেন, তাই উনি অনুষ্ঠানে আসবেন কি-না তা আমাকে নিশ্চিত করে বলেননি।’  

তিনি আরও বলেন, ‘এটা ঠিক যে বহু বিষয়েই আমাদের সঙ্গে তাদের বিরোধ আছে। তবুও তিনি ও তার স্ত্রী এলে আমরা খুশি হবো। আমরা সকলকে নিয়েই বাংলা গড়তে চাই।’

এ সময় তিনি বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসু অনুষ্ঠানে এলে ‘আমরা খুব খুশি হবো’ বলে মন্তব্য করেন।  

পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘এ যাবৎ রাজ্যে দায়িত্ব পালন করা প্রাক্তন রাজ্যপালদেরও শপথ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে। আমি নিজে টেলিফোন করে কয়েকজনকে আমন্ত্রণ জানিয়েছি।’  

আগামীকাল শুক্রবার দুপুরে রাজভবনে মুখ্যমন্ত্রী শপথ অনুষ্ঠিত হবে। রাজ্যপালের দপ্তর থেকে আমন্ত্রণপত্র ইস্যু করা হচ্ছে। তবে বিজয়ী দলের নেত্রী হিসেবে মমতা ব্যানার্জি ব্যক্তিগতভাবে নিজ উদ্যোগে রাজ্যের বিশিষ্টজনদের কাছে আমন্ত্রণপত্র পাঠাচ্ছেন।

উল্লেখ্য, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এরই মধ্যে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৪ ঘণ্টা, মে ২০১১  

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2011-05-19 03:19:53