ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

রাজ্যের ৪ জেলায় পঞ্চম দফার ভোট শনিবার

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৫-০৫ ১০:৩৩:৩০ এএম

প্রথম চার দফা নির্বিঘ্নে ভোটপর্ব শেষ হওয়ার পর শনিবার পঞ্চম দফার ভোটের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে ইসি। এখন শেষ মুহূর্তে চলছে বৈদ্যুতিক ভোটযন্ত্রের পরীক্ষা।

কলকাতা: প্রথম চার দফা নির্বিঘ্নে ভোটপর্ব শেষ হওয়ার পর শনিবার পঞ্চম দফার ভোটের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে ইসি। এখন শেষ মুহূর্তে চলছে বৈদ্যুতিক ভোটযন্ত্রের পরীক্ষা।

ইসির পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার জানানো হয়েছে, রাজ্যের চার জেলার ৩৩টি বিধানসভা আসনের জন্য এই পর্বে ভোট নেওয়া হবে। এর মধ্যে বর্ধমানের ১২টি, বাঁকুড়ার ৯টি, পুরুলিয়ার ৫টি ও পশ্চিম মেদিনীপুরের ৭টি আসন রয়েছে।

শনিবার পঞ্চম দফার ভোটে ১৯৩ জন জন্য প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধরিত হবে। এর মধ্যে নারী প্রার্থী রয়েছেন ১৭ জন।

এই পর্বের নির্বাচনের জন্য ১১ হাজার ৬৩১ টি বৈদ্যুতিক ভোটযন্ত্র ব্যবহার করা হবে।

পশ্চিম মেদিনীপুরে ৫৫, পুরুলিয়ায় ৩৮, বাঁকুড়ায় ৩৯, এবং বর্ধমানে ৫১ জন প্রার্থী রয়েছেন।

বামফ্রন্টের মধ্যে সিপিএমের ৩২, সিপিআই ১, ফরওর্য়াড ব্লক ৩, আরএসপি ১ ও ডিএসপির ১ জন প্রার্থী রয়েছেন। জোটের মধ্যে তৃণমূল ৩৩ ও কংগ্রেসের ৫ জন প্রার্থী রয়েছেন।

এছাড়াও বিজেপি ৩৮, বিএসপি ১২, অন্যান্য ৪৯ এবং নির্দলীয় ১৮ জন প্রার্থী লড়ছেন।

এই পর্বের মোট ভোটার ৭৪ লাখ ১৭ হাজার ৭২৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪৯ লাখ ১ হাজার ৭৭০ ও নারী ভোটার ৩৫ লাখ ১৫ হাজার ৯৩৭ জন ও ১৬ জন হিজড়া ভোটার।

মোট ৯ হাজার ৪২৫টি বুথে ভোট নেওয়া হবে। এর মধ্যে ৭ হাজার ৪৮৮ টি মূল বুথ থাকছে। ১ হাজার ৯৩৭টি সহ বুথ।

দাসপুর বিধানসভা কেন্দ্রে সবচেয়ে বেশি ২৪ লাখ ২ হাজার ৩৪৪ জন ভোটার রয়েছেন।

অন্যদিকে খড়গপুর বিধানসভা কেন্দ্র সবচেয়ে কম ১৬ লাখ ৬ হাজার ৮৪৪ জন ভোটার রয়েছেন।

এই পর্বে উল্লেখ যোগ্য প্রার্থী রয়েছেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সূর্যকান্ত মিশ্র, পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেস সভাপতি ডা. মানস ভুঁইয়া, বিধানসভা কংগ্রেসের মুখ্য সচেতক জ্ঞান সিং সোহন পাল ও রাজ্যের সাবেক মন্ত্রী ও ডিএসপি প্রার্থী প্রবোধ সিনহা।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৪ ঘণ্টা, মে ৫, ২০১১

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

কলকাতা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2011-05-05 10:33:30