[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

দক্ষিণ দিনাজপুরে মমতার সভায় থাকল না কংগ্রেস নেতৃত্ব

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৪-১১ ১:১৯:১৪ পিএম

অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখার্জি যখন কলকাতায় বসে জোটের পক্ষে সওয়াল করছেন ঠিক তখন দক্ষিণ দিনাজপুরে মমতা ব্যানার্জির জনসভায় কোনও কংগ্রেস নেতা-কর্মী উপস্থিত নেই। বিষয়টি রাজনৈতিক মহলকে বিস্মিত করেছে।

কলকাতা: অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখার্জি যখন কলকাতায় বসে জোটের পক্ষে সওয়াল করছেন ঠিক তখন দক্ষিণ দিনাজপুরে মমতা ব্যানার্জির জনসভায় কোনও কংগ্রেস নেতা-কর্মী উপস্থিত নেই।

বিষয়টি রাজনৈতিক মহলকে বিস্মিত করেছে।

সোমবার দুপুর ১টা নাগাদ হেলিকপ্টারে করে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপন বিধানসভায় তৃণমূল প্রার্থী বাচ্চু হাঁসদার সমর্থনে জনসভা করতে আসেন মমতা। কিন্তু জনসভায় কোনও কংগ্রেস নেতা উপস্থিত হননি।

গতকালই তপন ব্লক কংগ্রেস সভাপতি রতন সরকার জানিয়েছিলেন, তারা মমতার সভা বয়কট করবেন।

এর কারণ হিসাবে তারা জানিয়েছিলেন, তৃণমূল তাদের কোনও অনুষ্ঠানে ডাকছে না। এমনকি যে প্রচার চালানো হচ্ছে তাতে বলা হচ্ছে তৃণমূল এসএউসি জোট প্রার্থী। একবারও কংগ্রেস সমর্থিত বলা হচ্ছে না।

ঠিক একই ঘটনা ঘটেছে হরিরামপুর, গঙ্গারামপুর ও কুমারগঞ্জে।

মালদা জেলায় তিন বিধানসভা কেন্দ্রে গতকাল রোববার মমতা যে সভা করেন সেখানেও কোনও কংগ্রেস নেতৃত্ব উপস্থিত হননি।

এদিকে, মুর্শিদাবাদ জেলা কংগ্রেসের প্রভাবশালী নেতা ও সাংসদ অধীর চৌধুরী এদিন হরিহর পাড়ায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে গোঁজ প্রার্থী সৈয়দ আলমগীরের সমর্থনে এক জনসভায় যোগ দেন।

তিনি বলেছেন, রবার্ট ক্লাইভ যেমন মুর্শিদাবাদের দখল নিয়ে বাংলা দখল করেছিল, তেমনই মমতা মুর্শিদাবাদ দখল করে কংগ্রেসকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে নিশ্চিহ্ন করতে চাইছে।

দক্ষিণবঙ্গের জেলারগুলোর মতো উত্তরের জেলাগুলোতেও জোটের বিরুদ্ধে অনেক গোঁজ প্রার্থী দাঁড়িয়ে পড়েছেন।

মালদা জেলার ৫টি আসনে জোট প্রার্থীর বিরুদ্ধে কোথাও কংগ্রেস কোথাও বা তৃণমূল গোঁজ প্রার্থী দাঁড়িয়েছে। উত্তর দিনাজপুর জেলার ৭টি আসনে, কোচবিহার ২টি, জলপাইগুড়ি ১টি, মুর্শিদাবাদে ৪টি আসনেও একই অবস্থা।

অন্যদিকে তৃণমূলের জোট সঙ্গী এসএউসি উত্তরের জেলায় কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সবকটি আসনে প্রার্থী দিয়েছে। সব মিলিয়ে এই গোঁজ প্রার্থী নিয়ে জেরবার তৃণমূল ও কংগ্রেস জোট।

বাংলাদেশ সময়: ২২০৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০১১

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

কলকাতা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache