ঢাকা, রবিবার, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ২১ জুলাই ২০১৯
bangla news

তামিলনাড়ুর কোটিপতি প্রার্থীরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৩-২৯ ৯:৩০:৩১ এএম

ভারতের বিধানসভা নির্বাচনে তামিলনাড়ু রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতিশ্রুতি যেমন নজর কাড়ছে, ঠিক তেমনই প্রার্থীদের সম্পদের হিসাব দেখেও চোখ কপালে উঠছে আমজনতার। কোটিপতি এসব প্রার্থীর সম্পদের নমুনা পেশ করেছে রাজ্যের নির্বাচন কমিশন।

কলকাতা: ভারতের বিধানসভা নির্বাচনে তামিলনাড়ু রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতিশ্রুতি যেমন নজর কাড়ছে, ঠিক তেমনই প্রার্থীদের সম্পদের হিসাব দেখেও চোখ কপালে উঠছে আমজনতার। কোটিপতি এসব প্রার্থীর সম্পদের নমুনা পেশ করেছে রাজ্যের নির্বাচন কমিশন।

নিবার্চন কমিশন সূত্রে জানা যায়, রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী ডিএমকে নেতা করুণানিধি ও তার দুই স্ত্রী দয়ালু ও রজতীর মোট ঘোষিত সম্পদের মূল্য ৪১ কোটি রুপি।

তবে তাকে ছাপিয়ে গেছেন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এআইডিএমকে নেত্রী জয়ললিতা। তার সম্পদের মূল্য ৫১ কোটি ৪১ লাখ রুপি।

সংশিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, করুণানিধির প্রথম স্ত্রী কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এম কে আলাগিরি ও তামিলনাড়ুর উপ-মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিনের মা দয়ালুর সম্পদের মূল্য ১৫ কোটি ৪০ লাখ রুপি।

এছাড়াও তার ১৬ লাখ রুপির একটি গাড়ি আছে। ৬ কোটি রুপি মূল্যের ডিএমকের টিভি চ্যানেল ‘কলাইগনার’ ৬০ শতাংশ শেয়ারও তার নামে।

দয়ালুর ১০ লাখ ৯৬ হাজার রুপির স্বর্ণের গহনা ও ১ লাখ ৬ হাজার রুপির অন্যান্য গহনা আছে।

এছাড়া থিরুভারুর এলাকায় ৫ লাখ ৫১ হাজার রুপির একটি বাড়ি আছে তার।

করুণানিধির দ্বিতীয় স্ত্রী ভারতের সাংসদ কানিমোঝির মা রজতীর শেয়ারের পরিমাণ ২৫ লাখ। টাকার অঙ্কে যা ২ কোটি ৫ লাখ রুপি।

৯ লাখ ৮৫ হাজার রুপির স্বর্ণের গহনা ও চেন্নাইতে ৩ কোচি ১৪ লাখ রুপি মূল্যের একটি বাড়ি আছে।

আর সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার রয়েছে নগদ ২৫ হাজার রুপি। ৮ লাখ ৩৫ হাজার রুপি মূল্যের ৫টি গাড়ি।

ব্যাঙ্কে জমা আছে ৪ লাখ ৫০ হাজার রুপি। ২ কোটি রুপির ফিক্সড ডিপোজিট, ৫০ হাজার রুপি মূল্যের শেয়ার। যা আবার এরই মধ্যে বাজেয়াপ্ত করে আদালতে জমা দিয়েছে পুলিশ।

আর আছে ১১ কোটি ৩০ লাখ রুপি মূল্যের কৃষি জমি। এছাড়া চেন্নাই ও হায়দ্রাবাদে ৬ কোটি ও ৩৯ লাখ রুপি মূল্যের চারটি বাণিজ্যিক ভবন।

পিছিয়ে নেই রাজ্যের করুণানিধি মন্ত্রী সভার সেকেন্ড-ইন-কমান্ড ও করুণানিধির ছেলে স্ট্যালিনও।

জনতার এ সেবকও কোটিপতি। শুধু গাড়িটাই তার নেই। তার সম্পতির মূল্য ১ কোটি ১২ লাখ রুপি। যদিও বাজারে তার ৭০ হাজার রুপি ঋণ আছে।

এদিকে খাদ্যমন্ত্রী ই ভি ভেলুর পেশ করা সম্পত্তির হিসাবে রাজ্যজুড়ে বিস্ময় তৈরি করেছে। গত পাঁচ বছরে তার সম্পত্তির পরিমাণ লাফ দিয়ে বেড়ে গেছে কয়েক গুণ।

২০০৬ সালে বিধানসভা নির্বাচনের আগে তার সম্পত্তি ছিল ১ লাখ রুপি। এখন তার ব্যাঙ্কে রয়েছে ১৭ লাখ রুপি। তার কৃষি জমির মূল্য ১ কোটি ৭৫ লাখ রুপি।

ভেলুর বাড়ির মূল্য ১ কোটি ২৫ লাখ রুপি। তার স্ত্রীর গহণার মূল্য ৫ লাখ ৭৬ হাজার রুপি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৪ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০১১

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2011-03-29 09:30:31