ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ সফর ১৪৪২

ইচ্ছেঘুড়ি

ঈশপের গল্প

গরিব বিধবা ও তার ভেড়া 

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১১ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৮, ২০১৯
গরিব বিধবা ও তার ভেড়া  প্রতীকী ছবি

এক গ্রামে বাস করতেন একজন বিধবা। তিনি খুব গরিব ছিলেন। পরিবার বলতে ছিল শুধু একটি ভেড়া। 

নির্দিষ্ট সময় পরপর শরীরের উল ছাঁটতে ভেড়াটিকে ছাঁটাইকারীর কাছে নিতে হতো। এজন্য অল্পকিছু টাকা খরচ করতে হতো তাকে।

 

সেই টাকা বাঁচানোর জন্য একদিন বিধবা নিজেই তার ভেড়ার উল ছাঁটবেন বলে ঠিক করলেন।  

কিন্তু এই কাজে তিনি অদক্ষ। তাই উল ছাঁটার সময় তিনি ভেড়ার চামড়াই কেটে ফেললেন। ভেড়াটির শরীর থেকে বের হলো রক্ত।  

ব্যথায় কাতর ভেড়া কাঁদতে কাঁদতে প্রশ্ন করলো, ‘আপনি আমাকে এতো ব্যথা কেনো দিচ্ছেন, মনিব?’ 

আরও বললো, আপনি যদি আমার মাংস চান, তাহলে আমাকে কসাইয়ের কাছে নিয়ে যান। সে আমাকে এক মুহূর্তেই মেরে ফেলবে। যদি আমার উল চান, তাহলে আমাকে ছাঁটাইকারীর কাছে নিয়ে যান। তিনি আমাকে ব্যথা না দিয়েই উল ছেঁটে দেবেন।

একথা বলতে বলতে শরীরের ব্যথায় কাতর ভেড়া অসুস্থ হয়ে পড়লো।  

শিক্ষণীয় বিষয়: সবচেয়ে কম খরচেই সর্বাধিক লাভ হয়, তা সব সময় ঠিক নয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১১১০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৮, ২০১৯ 
এফএম/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa