bangla news

এ বছর হজে সরকারিভাবে ১৭ হাজারেরও বেশি হাজী পাঠানো হবে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২৫ ৯:৩৬:৫২ পিএম
মতবিনিমিয় সভায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ। ছবি: বাংলানিউজ

মতবিনিমিয় সভায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ। ছবি: বাংলানিউজ

গোপালগঞ্জ: দালালদের খপ্পরে না পড়ে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ বলেছেন, এ বছর হজে সারা দেশ থেকে সরকারিভাবে ১৭ হাজারেরও বেশি হাজী পাঠানো হবে।

গোপালগঞ্জ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শনিবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে ফাউন্ডেশনটির নিজস্ব কার্যালয়ে আয়োজিত মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কায্যক্রম প্রকল্পের শিক্ষক ও ওলামা-মাশায়েখদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত মতবিনিমিয় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সব দেশের ৮০ ভাগ লোক সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে আসেন। সরকারি ব্যবস্থাপনায় এলে কোনো ধরনের সমস্যা হওয়ার সুযোগ নেই। সরকারি ব্যবস্থাপনায় যারা হজে যান, তারা সবাই জামাই আদরে হজ পালন করতে পারেন। আর যারা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যান, তারা অত্যন্ত কষ্টের সঙ্গে কান্না করতে করতে দেশে ফিরে আসেন।

শেখ মো. আব্দুল্লাহ আরও বলেন, সরকারিভাবে হজে গেলে নিরাপত্তা ও হজ পালন করার সমস্ত পদ্ধতি অত্যন্ত সুন্দরভাবে ব্যবস্থা করা যায়। সরকারি পয্যায়ে কোনো দালাল থাকে না। খাওয়া-দাওয়ার কষ্ট নাই। টাকা একটু বেশি লাগে। 

গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কাজী শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিমিয় সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, পুলিশ সুপার (পদোন্নতিপ্রাপ্ত) আসলাম খান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক আনিসুজ্জামান সিকদার, গোপালগঞ্জ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক আবু অবায়দা মো. মাস-উ-দুল হক, কাজুলিয়া মাদ্রাস মোহতামিম মাওলানা আবুল কালাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। 

সভা শেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ যাকাতের টাকায় পরিচালিত সেলাই প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়া নয়জন প্রশিক্ষণার্থীর হাতে নয়টি সেলাই মেশিন এবং মসজিদভিত্তিক বিভিন্ন পাঠাগারে ১৪টি আলমিরা দেন। 

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২০
এসআরএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   গোপালগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-25 21:36:52