bangla news
মাসআলা

বার্ধক্যের কারণে নফল নামাজ বসে পড়ার বিধান

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-১২ ২:০৫:৫৩ পিএম
একাকী নফল নামাজ আদায়। ছবি: সংগৃহীত

একাকী নফল নামাজ আদায়। ছবি: সংগৃহীত

প্রশ্ন: আমার বড় চাচা বার্ধক্যে উপনীত হয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে। বার্ধক্যের কারণে তিনি নফল নামাজের ক্ষেত্রে প্রায়ই এমন করেন যে, কখনো দাঁড়িয়ে নামাজ শুরু করেছেন, কিন্তু বাকি অংশ বসে আদায় করেন। আবার কখনো বসে শুরু করেন; কিন্তু পরে দাঁড়িয়ে বাকিটা আদায় করেন। এভাবে নফল নামাজ পড়া জায়েজ আছে? সঠিক জানালে কৃতজ্ঞ হবো।

উত্তর: এভাবে নফল পড়তে অসুবিধা নেই। উম্মুল মুমিনিন আয়েশা (রা.) থেকে বর্ণিত আছে, রাসুল (সা.) বার্ধক্যে উপনীত হওয়া পর্যন্ত তিনি কখনো তাকে ‘সালাতুল লাইল’ বা রাতের নফল নামাজ বসে আদায় করতে দেখেননি। বার্ধক্যে পৌঁছার পর তিনি (নফল নামাজে) বসে কেরাত পাঠ করতেন, আর রুকুতে যাওয়ার সময় হলে দাঁড়িয়ে যেতেন। এবং ত্রিশ বা চল্লিশ আয়াত তেলাওয়াত করে রুকুতে যেতেন। (বুখারি, হাদিস: ১১১৮; মুসলিম, হাদিস: ৭৩১)

স্মর্তব্য যে, বিনা ওজরে (কারণ ছাড়া) বসে নফল নামাজ পড়লে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায়ের অর্ধেক সওয়াব লাভ হয়। তবে বার্ধক্যের কারণে অথবা দুর্বলতা-অসুস্থতার কারণে বসে পড়লে, তখন পূর্ণ সওয়াব পাওয়া যাবে। 

সূত্র: আদ্দুররুল মুখতার: ২/৩৬; আলমাবসুত, সারাখসি: ১/২০৮; খুলাসাতুল ফাতাওয়া: ১/১৯১; আত-তাজনিস ওয়াল মাজিদ: ২/৯৬) 

প্রশ্নটি করেছেন: কামরুল হুদা, বেগমগঞ্জ, নোয়াখালী

ইসলাম বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। লেখা ও প্রশ্ন পাঠাতে মেইল করুন: bn24.islam@gmail.com

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯
এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ইসলাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-12 14:05:53