[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

জোর করে হিজাব খুলে ৬০ হাজার ডলার ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে পুলিশ

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-০১ ৬:১২:১৮ এএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

পর্দা ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ বিধান। কোরআনে কারিমের বেশ কয়েকটি সূরায় পর্দা সংক্রান্ত বিধান দেওয়া হয়েছে। পর্দার বিষয়ে আল্লাহতায়ালা সব শ্রেণীর ঈমানদার নারী-পুরুষকে সম্বোধন করেছেন।

ইসলামি শরিয়তের বিধান মেনে মুসলিম নারীরা পর্দা করেন, হিজাব ব্যবহার করেন। সে হিসেবে বলা চলে, হিজার, বোরকা বা নেকাব পরা মুসলিম নারীর অধিকার। এটা ধর্মীয় দৃষ্টিতে নারীর জন্য অবশ্য পালনীয়ও বটে।

সম্প্রতি জোর করে হিজাব খুলে ফেলার এক মামলায় নিউইয়র্ক শহরের কর্তৃপক্ষ তিনজন নারীর সঙ্গে এক আইনি সমঝোতায় পৌঁছেছে এবং তাদের প্রত্যেককে ৬০ হাজার মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে রাজি হয়েছে। 

আরব নিউজের খবরে বলা হয়েছে, মামলার বাদী ওই তিন নারী অভিযোগ করেছিলেন যে, নিউইয়র্ক পুলিশের কর্মকর্তারা সবার সামনে তাদের হিজাব খুলে ফেলতে বাধ্য করে এবং ছবি তুলে। 

মামলাটির শুরু ২০১২ সালে। এক নারীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলায় পুলিশ তাকে আটক করে। 

ব্রুকলিন পুলিশ প্রিসিংটে জনসমক্ষে তাকে হিজাব খুলতে বাধ্য করা হয় এবং ছবি তোলা হয়। 

ওই নারীর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলাটি আগেই খারিজ হয়ে যায়। 

কিন্তু হিজাব খোলার ব্যাপারে একই ধরনের বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটার পর এ নিয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয় এবং এতদিন ধরে মামলাটি চলছিল। 

অবশ্য এরই মাঝে ২০১৫ সালে নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগ থেকে কর্মকর্তাদের প্রতি নতুন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। ওই নির্দেশনায় বলা হয়, ধর্মীয় কারণে কিংবা ধর্মীয় পোশাকাদির জন্য কাউকে নিগ্রহ করা যাবে না। 

এই মামলার বাদী পক্ষের উকিল তাহানি আবুশি গণমাধ্যমকে বলেন, মামলাটি শুধু মুসলমানদের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ ছিল না, অন্য যেসব ধর্মে মাথা ঢেকে রাখার রেওয়াজ আছে, তাদের জন্যও এই মামলার রায় বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। এই সিদ্ধান্তের ফলে অযথা কেউ ধর্মীয় কারণে নিগ্রহের শিকার হবে না। 

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: bn24.islam@gmail.com

বাংলাদেশ সময়: ১৭১১ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০১৮
এমএইউ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa