ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
bangla news

এখন থেকে নিউ ইয়র্কের স্কুলগুলো পাবে ঈদের ছুটি

379 |
আপডেট: ২০১৫-০৩-০৭ ৯:৩১:০০ এএম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

স্বপ্নের শহর নিউ ইয়র্ক নগরীতে বসবাসকারী মুসলিম জনগোষ্ঠীর জন্য দারুন এক সুসংবাদের ঘটনা ঘটল। নিউ ইয়র্কের মুসলিম সংগঠনগুলোর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে (০৪ মার্চ বুধবার) নিউ ইয়র্ক সিটির মেয়র বিল ডি ব্লাসিও ঘোষণা করলেন...

স্বপ্নের শহর নিউ ইয়র্ক নগরীতে বসবাসকারী মুসলিম জনগোষ্ঠীর জন্য দারুন এক সুসংবাদের ঘটনা ঘটল। নিউ ইয়র্কের মুসলিম সংগঠনগুলোর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে (০৪ মার্চ বুধবার) নিউ ইয়র্ক সিটির মেয়র বিল ডি ব্লাসিও ঘোষণা করলেন, ‘এখন থেকে নিউ ইয়র্ক সিটির পাবলিক স্কুলগুলোতে দুই ঈদে সরকারি ছুটি থাকবে দুই দিন করে।’

সিটি মেয়রের এই ঘোষণার মধ্য দিয়ে বহুজাতিক এই শহরের খ্রিস্টান ও ইহুদিদের মতো মুসলমানরাও ধর্মীয় উৎসব উপলক্ষে সরকারি ছুটির অধিকার লাভ করল।

সরকারি হিসাব অনুযায়ী নিউ ইয়র্ক শহরে বসবাসরত মুসলমানের সংখ্যা প্রায় ১১ লাখ। ২০০৮ সালে কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত জরিপের ফলাফলে বলা হয়, নিউ ইয়র্ক শহরের পাবলিক স্কুলগুলোর শিক্ষার্থীদের মধ্যে কমপক্ষে ১২ শতাংশ মুসলিম। অবশ্য মুসলিম সংগঠনগুলো এই সংখ্যা আরও বেশি বলে দাবি করে থাকে।

সিটি মেয়র বিল ডি ব্লাসিও গত বুধবার সকালে প্রথমে এক টুইটার বার্তায় নগরীর পাবলিক স্কুলগুলোতে ঈদের ছুটির ঘোষণা দিয়ে বলেন, এর মাধ্যমে বহুজাতিক মূল্যবোধের এই শহরে জাতিগত বৈচিত্রের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা দেখানোর আরেকবার শ্রদ্ধা প্রদর্শনের সুযোগ ঘটল।

এরপর মেয়র তার নিজের এলাকা ব্রুকলিনের একটি স্কুলে এ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। ওই স্কুলের ৩৫ শতাংশ শিক্ষার্থী মুসলিম। সেখানে স্কুল চ্যান্সেলর ফারিনা উপস্থিত ছিলেন। তারা দু’জন একসঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে নিউ ইয়র্ক নগরীতে ঈদের ছুটির ঘোষণা দেন। ঘোষণায় বলা হয়, এখন থেকে ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহায় পাবলিক স্কুলগুলোতে দুই দিন করে সরকারি ছুটি থাকবে। মেয়র বিল ব্লাসিও বলেন, এটি নিছক স্কুলগুলোতে ঈদের ছুটি ঘোষণাই নয়, বরং পৃথিবীর মহান একটি বিশ্বাসের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা প্রদর্শনের বিষয়। বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে তিনি জানান, চলতি বছর থেকেই নিউ ইয়র্ক নগরীর পাবলিক স্কুলগুলো এই সরকারি ছুটি ভোগ করবে।

এ ঘোষণার ফলে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের সমালোচনার মুখে পড়বেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এই স্বীকৃতি দিয়েছি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান অনুসারে।’

এ সময় স্কুল চ্যান্সেলর কারমেন ফারিনা বলেন, নতুন এই ছুটির ঘোষণা শিক্ষণীয় একটি বিষয়। এর ফলে এখন থেকে ক্লাসে শিক্ষার্থীরা অন্য ধর্ম সম্পর্কে জানার সুযোগ পারে এবং সহনশীল হতে উৎসাহিত হবে।

মেয়রের এই ঘোষণার পর নিউ ইয়র্ক নগরীর মুসলমানরা আনন্দ প্রকাশ করেন।

প্রসঙ্গত, এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের ভারমন্ট, ম্যাসাচুসেটস ও নিউ জার্সির পাবলিক স্কুলগুলোতে ঈদ উপলক্ষে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য যে, বিল ডি ব্লাসিওর নির্বাচনী ওয়াদা ছিল ছুটির বিষয়টি।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩০ ঘন্টা, মার্চ ০৭, ২০১৫

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ইসলাম বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2015-03-07 09:31:00