bangla news

প্রয়োজনীয় কয়েকটি দোয়া

2957 |
আপডেট: ২০১৫-০২-১৯ ৭:৪৭:০০ এএম

‘বিসমিল্লাহি তাওয়াক্কালতু আলাল্লাহি ওয়া লা হাওলা ওয়ালা কুউওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ।’

বাড়ি থেকে বের হওয়ার দোয়া
উচ্চারণ : ‘বিসমিল্লাহি তাওয়াক্কালতু আলাল্লাহি ওয়া লা হাওলা ওয়ালা কুউওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ।’

অর্থ : আল্লাহর নামে, আল্লাহর ওপর ভরসা করে বের হচ্ছি, আল্লাহ ছাড়া কোনো ভালো কাজ করার কিংবা মন্দ কাজ থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয়।

ফজিলত : হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি ঘর থেকে বের হওয়ার সময় দোয়াটি বলে, তখন তার জন্য বলা হয়, তোমার জন্য যথেষ্ট হয়েছে, তুমি রক্ষা পেয়েছ এবং শয়তান তার থেকে দূরে সরে যায়।’ -আবু দাউদ : ৫০৯৫

অন্য এক হাদিসে এসেছে, ‘তার জন্য অন্য শয়তান বলে, ওই লোককে তুমি কীভাবে পথভ্রষ্ট করবে যে এরই মধ্যে হেদায়াতপ্রাপ্ত হয়েছে, তার জন্য যথেষ্ট হয়েছে এবং রক্ষা পেয়েছে।’

সকালে সন্ধ্যায় পড়ার দোয়া
উচ্চারণ : ‘রাদিতু বিল্লাহি রাব্বা ওয়াবিল ইসলামী দিনা ওয়াবি মুহাম্মাদিন নাবিয়্যা।’

অর্থ : আল্লাহ আমার প্রভু, ইসলাম আমার ধর্ম এবং মুহাম্মদ (সা.) আমার নবী হওয়ায় আমি সন্তুষ্ট আছি।

ফজিলত : আবু দাউদ শরিফে বর্ণিত হয়েছে, যে ব্যক্তি এই দোয়টি পড়বে তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যাবে। (যদি জান্নাতে প্রবেশের প্রতিবন্ধক কোনো আমল সে না করে। -আবু দাউদ : ১৫২৯

হাদিসে আরও বলা হয়েছে, যে ব্যক্তি সকাল-সন্ধ্যায় এই দোয়াটি তিন বার পাঠ করবে আল্লাহতায়ালা কেয়ামত দিবসে তাকে সন্তুষ্ট করবেন। তিরমিজি শরিফে ইরশাদ হয়েছে, যে ব্যক্তি সকাল-সন্ধ্যায় এই দোয়াটি তিন বার পাঠ করবে আল্লাহতায়ালা কেয়ামত দিবসে তাকে সন্তুষ্ট করবেন।

সাইয়্যেদুল ইসতিগফার বা সর্বশ্রেষ্ঠ ইসতিগফার
উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা আনতা রাব্বী লা ইলাহা ইল্লা আনতা খালাকতানী, ওয়া আনা আবদুকা, ওয়া আনা আলা আহদিকা মাসতাতা’তু, আউজুবিকা মিন শাররি মা সানা’তু, আবুউ লাকা বিনি’মাতিকা আলাইয়া, ওয়া আবুয়ু লাকা বিজানবী, ফাগফিরলী, ফা-ইন্নাহু লা ইয়াগফিরুজ-জুনুবা ইল্লা আনতা।’

অর্থ : হে আল্লাহ! তুমি আমার প্রতিপালক, তুমি ছাড়া কোনো মাবুদ নাই। তুমি আমার স্রষ্টা আর আমি তোমার গোলাম। যথাসম্ভব তোমার সাথে কৃত অঙ্গীকার ও প্রতিশ্রুতি রক্ষায় অটল থাকব। আমার কৃতকর্মের অনিষ্ট থেকে তোমার নিকট আশ্রয় চাই। আমার ওপর তোমার নেয়ামতসমূহের কথা স্বীকার করি। আমি আমার নাফরমানির কথাও স্বীকার করি। তাই আমার গুনাহ ক্ষমা করে দাও। কেননা তুমি ছাড়া আর কোনো মাবুদ নাই।

ফজিলত : যে ব্যক্তি এই ইসতিগফার সকালে পড়বে, অতপর সন্ধ্যার আগে তার মৃত্যু হলে, সে জান্নাতি হবে। অনুরুপভাবে কেউ সন্ধ্যায় পাঠ করে সকালের আগে তার মৃত্যু হলে, সে জান্নাতি হবে।

পরামর্শ : আরবির সঠিক উচ্চারণ বাংলায় করা কঠিন। তাই দোয়াগুলো নিকটস্থ মসজিদের ইমাম-খতিব বা কোনো বিজ্ঞ আলেমের কাছে শুদ্ধভাবে শিখে নেয়া যেতে পারে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৭ ঘন্টা, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2015-02-19 07:47:00