ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

হংকংয়ে বিতর্কিত ডাইনোসর কঙ্কালের নিলাম বাতিল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০২২
হংকংয়ে বিতর্কিত ডাইনোসর কঙ্কালের নিলাম বাতিল টাইরানোসরাস রেক্স প্রজাতির ডাইনোসরের কঙ্কাল

হংকংয়ে একটি টাইরানোসরাস রেক্স (টি-রেক্স) প্রজাতির ডাইনোসরের কঙ্কালের নিলাম বাতিল হয়ে গেছে। ডাইনোসরটি ৬ কোটি ৭০ লাখ বছর আগে বেঁচে ছিল বলে ধারণা করা হয়।

নিলাম হাউস ক্রিস্টি’স সোমবার (২১ নভেম্বর) সংবাদ সংস্থা এএফপিকে এ তথ্য জানিয়েছে।

একটি আমেরিকান ফসিল কোম্পানি ‘শেন’ নামের কঙ্কালটির একটি অংশ নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করার পরে এই নিলাম বাতিল করা হয়। গত রোববার মার্কিন কোম্পানিটির সন্দেহের খবর প্রকাশ করে নিউইয়র্ক টাইমস।

নিলাম হাউস ক্রিস্টিস এএফপিকে দেওয়া বিবৃতিতে বলেছে, ১৪০০ কেজি ওজনের ‘শেন’ কঙ্কালটি শুক্রবার হংকংয়ে শুরু হওয়া শরতের নিলাম থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। কঙ্কালটি বর্তমানে জনসাধারণকে প্রদর্শনের জন্য একটি জাদুঘরে রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মন্টানা রাজ্য থেকে খনন করে তোলা ডাইনোসরের কঙ্কালটি উচ্চতায় ১৫ ফুট এবং দৈর্ঘ্যে ৩৯ ফুট। এটি প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ ডাইনোসর বলে ধারণা করা হয়, যা প্রায় ৬ কোটি ৭০ লাখ বছর আগে পৃথিবীতে বেঁচে ছিল।

২০২০ সালে নিলাম হাউস ক্রিস্টিস ‘স্ট্যান’ নামে আরেকটি টি-রেক্স প্রজাতির ডাইনোসরের কঙ্কাল ৩১.৮ মিলিয়ন ডলার মূল্যে বিক্রি করেছিল।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক ইতিহাস জাদুঘরগুলির একটি শিকাগোর দ্য ফিল্ড মিউজিয়াম। তাদের মতে, সম্পূর্ণ ডাইনোসরের কঙ্কাল পাওয়া খুবই বিরল। কঙ্কালের কাঠামো সম্পূর্ণ করার জন্য হাড় ব্যবহার করা হয়। একটি টি-রেক্সে হাড়ের সংখ্যা ৩৮০টি বলে ধারণা করে ফিল্ড মিউজিয়াম।

শেন কঙ্কালটির প্রায় ৮০টি হাড় আসল বলে জানিয়েছে নিলাম কোম্পানি ক্রিস্টিস।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ব্ল্যাক হিলস ইনস্টিটিউট অব জিওলজিক্যাল রিসার্চের প্রেসিডেন্ট পিটার লারসন নিউইয়র্ক টাইমসকে বলেন, শেনের কিছু অংশ স্ট্যানের মতো দেখতে। ২০২০ সালে বিক্রি করার পরেও স্ট্যানের মেধা সম্পত্তির স্বত্বাধিকার ব্ল্যাক হিলস ইনস্টিটিউটেরই রয়েছে।

লারসন সংবাদমাধ্যমকে বলেন তার কাছে মনে হয়েছে, শেন কঙ্কালটি সম্পূর্ণ করার জন্য স্ট্যানের রেপ্লিকা থেকে হাড় ব্যবহার করা হয়েছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলিতে এই ধরনের কঙ্কালের বিক্রি মিলিয়ন মিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞরা এই বাণিজ্যকে বিজ্ঞানের জন্য ক্ষতিকারক বলে মনে করছেন। কারণ এইসব নিলাম কঙ্কালগুলোকে ব্যক্তিমালিকানাধীন করে গবেষকদের নাগালের বাইরে রাখতে পারে।

সূত্র: ব্যারনস, এএফপি

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০২২
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa