ঢাকা, রবিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারে হেলিকপ্টার থেকে গুলি, ৬ শিশুসহ নিহত ডজনেরও বেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২২
মিয়ানমারে হেলিকপ্টার থেকে গুলি, ৬ শিশুসহ নিহত ডজনেরও বেশি

মিয়ানমারের একটি গ্রামের স্কুলে জান্তা সরকারের হেলিকপ্টার থেকে গুলির ঘটনায় ৬ শিশু শিক্ষার্থীসহ ডজনেরও বেশি লোক নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ১৭ জন।

জার্মানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলে জানিয়েছে, হামলা ও হতাহতের ঘটনাটি ঘটে মূলত শুক্রবার। কিন্তু সেটি প্রকাশিত হয় গতকাল সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর)। যে স্কুলে জান্তা সরকার হামলা চালায় সেটির একজন প্রশাসক ও অফিস সহকারীর মাধ্যমে এ ঘটনার প্রকাশ হয়।

উত্তর-মধ্য মিয়ানমারের সেন্ট্রাল সাগাইং অঞ্চলের লেট ইয়েট কোন গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। ওই স্কুল প্রশাসক সংবাদ সংস্থা এপিকে জানান, সরকারি এমআই-৩৫ গানশিপ হেলিকপ্টার থেকে গুলি চালানো হয়। এ সময় শিশুদের ক্লাস চলছিল। আমরা তাদের নিরাপত্তার চেষ্টা করছিলাম। কিন্তু সেটি হয়নি। ৬ জন মারা গেছে।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের তো কোনো ভুল ছিল না। আমি ভাবতেও পারিনি মেশিনগান দিয়ে তাদের ওপর নির্মমভাবে গুলি চালানো হবে। এক ঘণ্টা ধরে গুলির ঘটনা ঘটে। হেলিকপ্টারের লোকেরা এক মিনিটের জন্য থামেনি। আমরা যা করতে পারতাম, তা শুধু বৌদ্ধ মন্ত্র উচ্চারণ করা।

ঘটনার পর রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, যে স্থাপনায় হামলা চালানো হয়েছে, তাতে বিদ্রোহীরা ছিল। তারা সামরিক বাহিনীকে আক্রমণের জন্য স্কুল ভবনটি ব্যবহার করছিল। ২০ শিক্ষার্থী ও শিক্ষককে আটক করা হয়েছে।

সরকারি বাহিনীর দাবি, পিপলস ডিফেন্স ফোর্স’র (পিডিএফ) অবস্থান নিশ্চিত করতে তারা লেট ইয়েট কোন গ্রাম পরিদর্শনের জন্য গিয়েছিল। এ সংগঠনটি মিয়ানমারে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে থাকে। সহযোগী সংগঠন কাচিন ইন্ডিপেনডেন্স আর্মি’র (কেআইএ) সদস্যসহ পিডিএফ বাহিনী ওই স্কুলে লুকিয়ে ছিল। সরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর গুলি চালালে তারা পাল্টা আক্রমণ করে।

হেলিকপ্টার হামলার ঘটনায় নিহতদের ব্যাপারে কোনো তথ্য দেয়নি জান্তা সরকার। তবে কয়েকজন আহত হয়েছে বলে স্বীকার করেছে। জান্তার দাবি, পিডিএফ ও কেআইএ লেট ইয়েট কোন গ্রামের বাসিন্দাদের মানব ঢাল হিসাবে ব্যবহার করেছে।

এক বিবৃতিতে সেনা বাহিনী জানায়, ওই স্কুল ও গ্রামের বিভিন্ন বাড়ি থেকে হাতে তৈরি ১৬টি বোমা জব্দ করা হয়েছে।

এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে মিয়ানমারের জান্তাবিরোধী ছায়া সরকার ন্যাশনাল ইউনিটি গভর্নমেন্ট (নাগ)। এক বিবৃতিতে সংগঠনটি বলে, নিজেদের ক্ষমতা ধরে রাখতে নিরীহ বেসামরিক লোকজনের ওপর হত্যা-নিপীড়ন চালাচ্ছে জান্তা। আটককৃতদের অবিলম্বে মুক্তির দাবিও জানিয়েছে নাগ।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২২
এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa