ঢাকা, শনিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

আর্মেনিয়া-আজারবাইজান তীব্র লড়াই, নিহত অর্ধশত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২২
আর্মেনিয়া-আজারবাইজান তীব্র লড়াই, নিহত অর্ধশত আজারবাইজান ২০২০ সালে ছয় সপ্তাহের সংঘর্ষে নাগর্নো-কারাবাখের উপর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করেছিল। ফাইল ছবি

আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে ভয়াবহ সীমান্ত সংঘর্ষ হয়েছে। এ লড়াইয়ে সোমবার (১২ জুলাই) দিনগত মধ্যরাতে আর্মেনিয়ার অন্তত ৪৯ সৈন্য নিহতের দাবি করা হয়েছে।

খবর আল জাজিরার।  

এদিকে বাকু এবং ইয়েরেভান শত্রুতা বৃদ্ধির জন্য একে অপরকে দোষারোপ করেছে।  

আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিনিয়ান নাগোর্নো-কারাবাখ নিয়ে বিরোধের কারণে আজারবাইজান আর্মেনিয়ান শহরগুলিতে আক্রমণ করার অভিযোগ করেছেন।

আর্মেনিয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, সোমবার (১২ জুলাই) দিনগত মধ্যরাতের কয়েক মিনিট পর সংঘর্ষ শুরু হয়, আর্মেনিয়ান ভূখণ্ডের অনেক অংশে আজারবাইজানি বাহিনী আর্টিলারি ব্যারেজ এবং ড্রোন হামলা চালিয়েছিল।

এদিকে আজারবাইজান অভিযোগ করেছে, তাদের বাহিনী আর্মেনিয়ান সেনাবাহিনীর ‘বড় আকারের উস্কানির’ প্রতিক্রিয়ায় গুলি চালিয়েছে। আর্মেনিয়ার সৈন্যরা মাইন স্থাপন করেছিল এবং বারবার আজারবাইজানের সামরিক অবস্থানে গুলি চালিয়েছিল বলেও দাবি করা হয়েছে।

বাকুও আর্মেনিয়ার বিরুদ্ধে সীমান্তে গোয়েন্দা তৎপরতা চালানোর অভিযোগ করেছে।

প্রসঙ্গত, আজারবাইজান ২০২০ সালে ছয় সপ্তাহের সংঘর্ষে নাগর্নো-কারাবাখের ওপর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়।  

কি বলছে প্রতিবেশী দেশগুলো:
আজারবাইজানের ঘনিষ্ঠ মিত্র তুরস্ক বলছে, আর্মেনিয়ার উচিত ‘উস্কানি বন্ধ করা ‘। তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু বলেছেন, তিনি সীমান্তে ‘আর্মেনিয়ান উস্কানি’ নিয়ে তার আজেরি প্রতিপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। শান্তি আলোচনায় মনোযোগ দেওয়ার জন্য ইয়েরেভানকে আহ্বান জানিয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

জেহুন বায়রামভের সঙ্গে আলোচনার পর মেভলুত কাভুসোগলু টুইটারে বলেছেন, ‘আর্মেনিয়ার উচিত তার উস্কানি বন্ধ করা এবং আজারবাইজানের সঙ্গে শান্তি আলোচনা ও সহযোগিতার দিকে মনোনিবেশ করা। ’ 

এদিকে ফ্রান্স জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সংঘর্ষের বিষয়টি উত্থাপন করবে বলে জানিয়েছে। প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর কার্যালয় বলেছে, তিনি উভয় পক্ষকে যুদ্ধবিরতি মেনে চলার জন্য অনুরোধ অব্যাহত রেখেছেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং রাশিয়ার পাশাপাশি, ফ্রান্স মিনস্ক গ্রুপের সহ-সভাপতি, যা বাকু এবং ইয়েরেভানের মধ্যে মধ্যস্থতা করে।

রাশিয়া আর্মেনিয়া এবং আজারবাইজানকে শত্রুতা বন্ধ করার এবং যুদ্ধবিরতি চুক্তি পালন করার আহ্বান জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, তারা মঙ্গলবার মস্কো সময় ৯টায় (জিএমটি ৬টা) যুদ্ধবিরতির মধ্যস্থতা করেছে এবং উভয় পক্ষই চুক্তির শর্ত পূরণ করবে বলে আশা করছে।

তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৫ মিনিটের মধ্যে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেছে। যদিও হামলার তীব্রতা কমে এসেছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২২
এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa