ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৭ জিলহজ ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

অস্ত্র বিক্রির দায়ে কঙ্গোতে ৮ সেনাসহ ১১ জনের মৃত্যুদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫১ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২২
অস্ত্র বিক্রির দায়ে কঙ্গোতে ৮ সেনাসহ ১১ জনের মৃত্যুদণ্ড

অস্ত্র বিক্রির অভিযোগে আটজন সেনা সদস্য ও তিনজন বেসামরিক লোককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন কঙ্গোর সামরিক আদালত। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে তারা বিদ্রোহী গোষ্ঠীর কাছে অস্ত্র বিক্রি করেছেন।

শুক্রবার (২৭ মে) প্রকাশ্যে তাদের মৃত্যুদণ্ডের রায় দেওয়া হয়। এ খবর দিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা

আদালতের সভাপতি কর্নেল কেলি ডায়াঙ্গা অপরাধীদের সহযোগিতা, যুদ্ধাপরাধ এবং বিদ্রোহমূলক আন্দোলনে অংশগ্রহণের জন্য দোষী সাব্যস্ত হওয়া তিন কর্মকর্তাসহ আটজন সেনা সদস্যের মৃত্যুদণ্ড দেন। একই সঙ্গে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয় আরও তিনজন বেসামরিক লোককে। তাদের মধ্যে দুইজন নারী ও একজন পুরুষ। এছাড়া দু’জন বেসামরিক লোককে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সাক্ষ্য-প্রমাণ না থাকায় খালাস পেয়েছেন আরও একজন সেনা সদস্য ও একজন বেসামরিক লোক।

কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলে ১২০টিরও বেশি সশস্ত্র গোষ্ঠী সক্রিয় রয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে। যেখানে বেসামরিক লোকদের গণহারে হত্যা করা বর্তমান সময়ে একটি সাধারণ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। তো তাদের কাছে অস্ত্র বিক্রি করা দেশদ্রোহীতার সামিল ও একটি বড় অপরাধ বলে মনে করছেন দেশটির সামরিক আদালত। তার পরিপ্রেক্ষিতে এ রায় দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০০৩ সাল থেকে মৃত্যুদণ্ডে একটি ডি ফ্যাক্টো স্থগিতাদেশ পালন করছে কঙ্গো। তবে জাতিসংঘের মতে, মৃত্যুদণ্ড প্রদান এখনও অব্যাহত রয়েছে দেশটিতে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫১ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২২
জেডএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa