ঢাকা, সোমবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

কিশোরীকে ধর্ষণ, আদালত প্রাঙ্গণে তরুণকে গুলি করে হত্যা! 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২২
কিশোরীকে ধর্ষণ, আদালত প্রাঙ্গণে তরুণকে গুলি করে হত্যা!  প্রতীকী ছবি

দিলশাদ হুসেন (২৫) নামের এক তরুণকে আদালত প্রাঙ্গণে গুলি করে হত্যা করেছেন ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) এক সাবেক জওয়ান। এ সময় তার ছেলেও সঙ্গে ছিলেন।

 

ভারতীয় সংবাদ সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) দেশটির উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুরে ঘটে এই ঘটনা।  

নিহত দিলশাদ হুসেন বিহারের মুজফফরপুরের বাসিন্দা। প্রায় দুই মাস আগে আদালত থেকে জামিন পেয়েছিলেন তিনি। অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় শুক্রবার গোরক্ষপুর আদালতে হাজিরা দিতে এসে নিহত হন।  

পুলিশ বলছে, শুক্রবার দুপুর ১টা ১৫ মিনিটের দিকে আদালতের গেটের সামনে আইনজীবীর অপেক্ষায় ছিলেন দিলশাদ। আইনজীবী আসার আগেই সেখানে পৌঁছান প্রাক্তন বিএসএফ জওয়ান ভগবত নিশাদ ও তার ছেলে নন্দলাল।  

অভিযোগ উঠেছে, নিজের লাইসেন্স করা পিস্তল দিয়ে দিলশাদের মাথা লক্ষ্য করে গুলি করেন ভগবত। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন দিলশাদ। এই ঘটনায় আদালত চত্বরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। দিলশাদকে গুলি করার পরই ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান বাবা-ছেলে। পরে ভগবত ও নন্দলালকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  

জানা গেছে, ২০২০ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি ভগবতের কিশোরী মেয়েকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে দিলশাদের বিরুদ্ধে। ২০২১ সালের ১২ মার্চ হায়দরাবাদ থেকে দিলশাদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। উদ্ধার করা হয় ভগবতের মেয়েকে। তারপরই দিলশাদকে কারাগারে পাঠানো হয়। দুই মাস আগে কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছিলেন তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২২
জেএইচটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa