ঢাকা, সোমবার, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ মে ২০২২, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

রাজধানী সরাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া, যাচ্ছে বোর্নিও দ্বীপের জঙ্গলে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৮, ২০২২
রাজধানী সরাচ্ছে ইন্দোনেশিয়া, যাচ্ছে বোর্নিও দ্বীপের জঙ্গলে

যানজট, গাদাগাদি জনসংখ্যা, দূষণ আর জলাবদ্ধতায় রাজধানী জাকার্তা হয়ে উঠেছে বসবাসের অযোগ্য এক শহর। সবকিছু বিবেচনা করে এবার রাজধানী সরিয়ে নিচ্ছে ইন্দোনেশিয়া।

দেশটির পার্লামেন্ট এ বিষয়ে একটি বিল পাস করেছে। বোর্নিও দ্বীপের একটি বনভূমিতে রাজধানী স্থানান্তর করা হবে। প্রেসিডেন্ট নতুন রাজধানীর নাম দিয়েছেন ‘নুসান্তারা’।

প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদোর উচ্চাভিলাষী ৩২.৫ বিলিয়ন ডলারের এই মেগাপ্রজেক্টের অনুমোদন দেওয়া হয় মঙ্গলবার। বিষয়টিকে একটি আইনি কাঠামো প্রদান করা হয়েছে এবং কীভাবে এর উন্নয়ন, অর্থায়ন ও পরিচালনা করা হবে তা নির্ধারণ করা হয়েছে।

পরিকল্পনামন্ত্রী সুহারসো মনোয়ারফা বিলটি পাস হওয়ার পর সংসদে বলেন, নতুন রাজধানী হবে জাতির পরিচয়ের প্রতীক। পাশাপাশি এটা হবে অর্থনীতির কেন্দ্রবিন্দু।  

দেশটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নতুন রাজধানী কম কার্বন নিঃসরণ করবে। এটি হবে ‘সুপার হাব’। এখানে ফার্মাসিউটিক্যাল, স্বাস্থ্য এবং প্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে শিল্প স্থাপন করা হবে।  

বর্তমানে ইন্দোনেশিয়ার প্রায় ২৭ কোটি মানুষের মধ্যে ৫৪ শতাংশ জাভা দ্বীপপুঞ্জে বাস করে। রাজধানী জাকার্তার অবস্থান সেখানেই।  

বোর্নিও দ্বীপের বনভূমিতে রাজধানী স্থানান্তরের সমালোচনা করছেন পরিবেশবিদরা। তারা বলছেন, এই পরিকল্পনা নিয়ে জনসাধারণের সঙ্গে তেমন কোনো আলোচনাই করা হয়নি। তারা আশঙ্কা করছেন, এই পদক্ষেপের ফলে ওরাংওটাং, সূর্য ভালুক এবং দীর্ঘ নাক ওয়ালা বানরের বাসস্থান ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যাবে। পাশাপাশি কয়লা খনি এবং পাম তেল শিল্প থেকে দূষণ বৃদ্ধি পাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৮, ২০২২
নিউজ ডেস্ক

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa