ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ আগস্ট ২০২২, ১৩ মহররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

এশিয়ায় প্রথম ওমিক্রনকে আলাদা করলেন গবেষকরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২১
এশিয়ায় প্রথম ওমিক্রনকে আলাদা করলেন গবেষকরা

এশিয়ায় প্রথমবারের মতো করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনকে ক্লিনিক্যাল নমুনা থেকে আলাদা করেছেন হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা।

সম্প্রতি রাশিয়ার বার্তা সংস্থা স্পুটনিক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের গবেষকরা করোনা ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনকে ক্লিনিক্যাল নমুনা থেকে আলাদা করতে সফল হয়েছেন। তারা এশিয়ার প্রথম কোনো গবেষক দল, যারা কাজটি করতে সক্ষম হয়েছেন।

হংকং বিশ্ববিদ্যালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ক্লিনিক্যাল নমুনা অনুসরণ করে গবেষকরা এখন ওমিক্রনের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন তৈরি করতে সক্ষম হবেন। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা ভাইরাসের নতুন এই ভ্যারিয়েন্টকে ‘উদ্বেগজনক’ ঘোষণা করেছে।

গত ২৯ নভেম্বর রাতে হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা কাজটিতে সফলতা পান। এর চারদিন আগে ২৫ নভেম্বর দেশটিতে দুজনের শরীরে ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছিল। বর্তমানে গবেষক দল ভ্যারিয়েন্টটির সংক্রমণযোগ্যতা, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ও রোগ সৃষ্টি করার ক্ষমতা সম্পর্কে জানতে নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, হংকংয়ে এখন পর্যন্ত সাতজন নাগরিকের শরীরে ওমিক্রন পাওয়া গেছে। নভেম্বরের শেষ দিকে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম ওমিক্রন শনাক্ত হয়। পরে বিশ্বের প্রায় ৩০টি দেশে এই ভ্যারিয়েন্টের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) আঞ্চলিক ডিরেক্টর ড. তাকেশি কাসাই বিবিসিকে জানিয়েছেন, বিভিন্ন দেশে ওমিক্রনে আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। ওমিক্রন থেকে করোনার নতুন ঢেউ আসার সম্ভাবনা আছে। এজন্য সব দেশকে তৈরি থাকতে বলেছেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২১
এনএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa