ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

যুদ্ধ: ইথিওপিয়ায় দুর্ভিক্ষের কবলে ৪ লাখ মানুষ, ঝুঁকিতে আরও ১৮ লাখ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০২ ঘণ্টা, জুলাই ৩, ২০২১
যুদ্ধ: ইথিওপিয়ায় দুর্ভিক্ষের কবলে ৪ লাখ মানুষ, ঝুঁকিতে আরও ১৮ লাখ ...

ঢাকা: সাম্প্রতিক যুদ্ধের কারণে ইথিওপিয়ার তিগ্রাই অঞ্চলের ৪ লাখের বেশি মানুষ ভয়াবহ দুর্ভিক্ষের কবলে পড়েছে এবং দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে অবস্থান করছেন সেখানকার আরও ১৮ লাখের বেশি অধিবাসী।

জাতিসংঘের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এবং আল জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়।

শুক্রবার (০২ জুলাই) তিগ্রাই সংকট নিয়ে প্রথম উন্মুক্ত বৈঠকে বসেন জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা।

জাতিসংঘের ভারপ্রাপ্ত মানবিক সহযোগিতা প্রধান রমেশ রাজাসিংহাম নিউ ইয়র্কে নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের বলেন, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে তিগ্রাইয়ের পরিস্থিতির নাটকীয় ভাবে মারাত্মক অবনতি হয়েছে। সেখানে গত কয়েক দশকের মধ্যে আমাদের দেখা সবচেয়ে বাজে দুর্ভিক্ষ চলছে।

তিনি বলেন, তিগ্রাইয়ে ৪ লাখের বেশি মানুষ ভয়াবহ দুর্ভিক্ষে ঢুকে পড়েছে এবং আরও ১৮ লাখ দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। অনেকে মনে করেন এই সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে। কমপক্ষে ৩৩ হাজার শিশু চরম পুষ্টিহীনতায় ভুগছে।

জাতিসংঘের ভারপ্রাপ্ত মানবিক সহযোগিতা প্রধান আরও বলেন, ২০ লাখের বেশি মানুষ এখনো বাস্তুচ্যুত এবং এখনো প্রায় ৫২ লাখ মানুষের মানবিক সহযোগিতা প্রয়োজন, যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু।

২০২০ সালের নভেম্বর মাস থেকে ইথিওপিয়ার সরকারি বাহিনীর সঙ্গে লড়াই করছে তিগ্রাই পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টের (টিপিএলএফ)। এ সংঘাতে প্রাণ হারিয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। ঘরবাড়ি হারিয়েছেন অন্তত ২০ লাখ মানুষ।

যুদ্ধরত সব পক্ষই গণহত্যা ও মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে বলে অভিযোগ এসেছে।

গত সপ্তাহে তিগ্রাই পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টের (টিপিএলএফ) সঙ্গে এক তরফা যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে ইথিওপিয়ার সরকারি বাহিনী। অন্যদিকে বিদ্রোহীরা বলছে তাদের এলাকা থেকে সব সৈন্য হটানো পর্যন্ত তারা লড়াই চালিয়ে যাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৩ ঘণ্টা, জুলাই ০৩, ২০২১
এমইউএম/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa