ঢাকা, বুধবার, ১ বৈশাখ ১৪২৮, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০১ রমজান ১৪৪২

আন্তর্জাতিক

তিব্বত-পূর্ব তুর্কিস্তান-হংকংয়ের রাজনৈতিক স্বাধীনতা নিয়ে আলোচনা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১
তিব্বত-পূর্ব তুর্কিস্তান-হংকংয়ের রাজনৈতিক স্বাধীনতা নিয়ে আলোচনা

তিব্বত, পূর্ব তুর্কিস্তান ও হংকংয়ের রাজনৈতিক স্বাধীনতা নিয়ে অনলাইনে আলোচনার আয়োজন করেছে একটি অধিকার গ্রুপ।  

তিব্বত, পূর্ব তুর্কিস্তান এবং হংকংয়ের চলমান মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টি তুলে ধরার জন্য গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর তিব্বত অ্যান্ড পারসেকিউটেড মাইনরিটিস (জিএমপিএম) নামে একটি প্যানেল আলোচনার আয়োজন করেছে।

অনলাইন আলোচনার বিষয় হবে ‘চীন: তিব্বত, পূর্ব তুর্কিস্তান এবং হংকংয়ের রাজনৈতিক স্বাধীনতার জন্য সংগ্রাম। ’ 

অনুষ্ঠানটি ২৮ ফ্রেব্রুয়ারি রোববার বিকেল সাড়ে ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে।

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে রয়েছেন বেনেডিক্ট রজার্স, সিইও হংকং ওয়াচ এবং কনজারভেটিভ পার্টির মানবাধিকার কমিশনের ভাইস চেয়ারম্যান; লেখক এবং একটিভিস্ট তেনজিন টিসাডুরা এবং বিশ্ব উইঘুর কংগ্রেসের যুক্তরাজ্যের পরিচালক রহিমা মাহমুত।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের (এইচআরডাব্লিউ) তথ্য মতে, জিনজিয়াং প্রদেশে উইগুর এবং অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকজনের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন মামলা বৃদ্ধি করেছে চীন। এসব মামলার মাধ্যমে তাদের দীর্ঘ কারাবাসে পাঠানো হচ্ছে।  

এইচআরডাব্লিউ বলেছে,  ২০১৬ সালের শেষের দিকে চীনা সরকার তার দমনমূলক ‘সহিংস সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কঠোর প্রচারণা’ বাড়ানোর পর থেকে আড়াই লাখের বেশি মানুষেকে দোষী সাব্যস্ত করে শাস্তি দিয়েছে।  

জিনজিয়াং ছাড়াও হংকং এবং তিব্বতে চীনের মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। সূত্র: এএনআই

বাংলাদেশ সময়: ২০০০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১
নিউজ ডেস্ক

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa